× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বুধবার

মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলেন সালমান এফ রহমান

অনলাইন

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি | ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার, ৯:৩১

মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলেন ঢাকা-১ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও বিশিষ্ট  শিল্পপতি সালমান এফ রহমান। আজ নবাবগঞ্জ পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় এ  গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।
দোহার ও নবাবগঞ্জ থেকে বিপুল ভোটে বিজয়ী হওয়ায় নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে তাকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নিয়েছেন। আমি আমার সরকারের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে আমার এলাকাকে এসব কীটদের প্রতি যুদ্ধ ঘোষণা করছি। যারা মাদকের ব্যবসা করেন, যারা অবৈধ ভাবে মাটি কাটেন, যারা সংখ্যালঘুদের জমি দখল করেন তাদের হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, যদি আপনারা আমাদের পার্টির লোকও হন আমি কিন্তু কোনো ছাড়  দেবো না। আর যদি প্রশাসনও এই অবৈধ কাজের সঙ্গে লিপ্ত থাকেন তাহলে তাদেরও কোনো ছাড় নেই। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণের মঙ্গলের জন্য।
জনগণ চেয়েছে বিধায় এবারও ইতিহাস গড়ে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশ ও দশের উন্নয়ন হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় মানে উন্নয়নের জোয়ার বইবে। উন্নয়নের এ প্রধানমন্ত্রী অনেক দেশের এখন আইকন। তাই তো দেশের জনগণ মন থেকে এ সরকারকে রায় দিয়েছেন।
নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় ইউনিক গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর আলী ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তোফাজ্জল হোসেন স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এতে সাবেক গণপরিষদের সদস্য আবু মোহা. সুবেদ আলী টিপু, সাবেক এমপি খন্দকার হারুন অর রশিদ, ঢাকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমান, আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য আ. বাতেন মিয়া, সিনিয়র আওয়ামী লীগ নেতা মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক স¤পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মনজুর হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান কিসমত, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাংগঠনিক স¤পাদক আবুল হোসেন, বেক্সিমকো গ্রুপের পরিচালক সায়ান এফ রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম মুস্তফা শিমু প্রমুখ। সভা শেষে সংগীত পরিবেশন করেন নগর বাউল ও জেমস।


অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
১৪ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবার, ১০:৪১

দুর্নীতির সংজ্ঞা বাংলাদেশে কি তা জানা নেই। কিন্তু ব্যাংক ঋণ পুনঃ তফসিল করা দুর্নীতির আওতায় পড়ে কি না তাও জানি না। বড় বড় সব শিল্পপতি তো সুকৌশলে তা-ই করছেন শুনি।

অন্যান্য খবর