× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার

রাজবাড়ীতে স্কুলছাত্রীর গায়ে আগুন দেয়ার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

এক্সক্লুসিভ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি | ১০ জুন ২০১৯, সোমবার, ৮:৪৬

রাজবাড়ী সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের খোলাবাড়িয়া গ্রামের স্কুলছাত্রী জুলি’র (১৬) কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা মামলায় প্রধান আসামিসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে রাজবাড়ী সদর থানা পুলিশ। গতকাল তাদেরকে আটক করা হয়। পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি স্কুল ছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় ২ আসামির  গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া খোলাবাড়ীয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়াজি’র স্ত্রী শিল্পী বেগম (৪৫) ও খানাখানাপুর রাস্তা ডাঙ্গা গ্রামের মৃত গোলাম নবী বাবলু মেম্বারের ছেলে সেতু বকস্‌ (১৮)।

জানা গেছে, গত ১২ই এপ্রিল স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার সময় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন লোক তার মেয়েকে রাস্তার পাশে জঙ্গলে নিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে আপত্তিকর ছবি তোলে। খানখানাপুর বাজারের মাছ ব্যবসায়ী মো. ফজলুর রহমান ওরফে আমুদে (৬২) এর মেয়েকে জোর পূর্বক তুলে নিয়ে আপত্তিকর ছবি তুলে তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে অজ্ঞাত বখাটে ছেলেরা। চাঁদার টাকা খোলাবাড়ীয়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী জাহাঙ্গীর মিয়াজি’র স্ত্রী শিল্পী বেগম (৪৫) নিকট রাখার জন্য হুমকি দেয়। টাকা পরিশোধ না করলে তার মেয়ের অপূরণীয় ক্ষতি করা হবে বলে হুমকি দেয়। চাঁদা টাকা না পেয়ে গত ৭ই জুন দুপুরে আসামিরা তার মেয়েকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে পার্শ্ববর্তী পাট ক্ষেতে নিয়ে শরীরে আগুন লাগিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।
এ ঘটনায় শনিবার, ৮ই জুন ফজলুর রহমান বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করে। রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার জানান, থানায় এজাহার দায়েরের পর মামলার প্রধান আসামি সহ ২ জনকে  ৩৫ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে থানা পুলিশ। অন্যান্য পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য জোর পুলিশি অভিযান চলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ark rahat
১০ জুন ২০১৯, সোমবার, ৭:২৮

borkha leauge may be , because helemet league available previously so borkha can do this thing so that no one can believe them

অন্যান্য খবর