× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

সাভারে বেতন-বোনাসের দাবিতে শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ১০ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৮:১৬

সাভারে বকেয়া বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে একটি তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে এবং টায়ার জ্বালিয়ে ঘণ্টাব্যাপী সড়ক অবরোধ করে রাখে। গতকাল সকালে সাভার পৌর এলাকার রাজাশন মহল্লায় অবস্থিত মারহাবা স্পিনিং মিলস লিমিটেড কারখানার শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। শিল্প পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, আগামী সোমবার পবিত্র ঈদুল আজহা। সেই উপলক্ষে রোববার থেকে তিনদিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু এখনো তাদের বেতন-বোনাস পরিশোধ করেনি মালিকপক্ষ। বৃহস্পতিবার শ্রমিকদের ঈদ বোনাস দেয়ার কথা থাকলেও সারাদিন কাজ করিয়ে রাতে পালিয়ে যায় মালিকপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় শুক্রবার সকালে ভুক্তভোগী শ্রমিকরা কারখানায় প্রবেশ করে প্রথমে কর্মবিরতি পালন শুরু করে।
এক পর্যায়ে প্রায় তিন শতাধিক শ্রমিক কারখানার সামনের রাস্তায় অবস্থান নেন। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে এবং টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি জানায়। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সড়ক অবরোধে ওই এলাকায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হলে শিল্প পুলিশের সদস্যরা মালিক পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের আশ্বাস প্রদান করেন। কারখানাটির রিং সেকশনের লাইনম্যান মেহেদী হাসান বলেন, মালিকপক্ষ প্রতি মাসেই আমাদের বেতন পরিশোধে গড়িমসি করে। আন্দোলন করে গত জুন মাসের বেতন পেয়েছি আগস্ট মাসের দুই তারিখে। বৃহস্পতিবার আমাদের বোনাস দেয়ার কথা বলে রাত ১০টা পর্যন্ত কাজ করানোর পরও কর্তৃপক্ষ কোনো উদ্যোগ না নিয়েই চলে যান। কারখানার ইউটিলিটি ম্যানেজার সুলতান মাহমুদ বলেন, বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা আজকের (শুক্রবার) মধ্যেই শ্রমিকদের সকল পাওনা পরিশোধ করে দিবেন। এ ব্যাপারে শিল্প পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহ বলেন, শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের বিষয়ে মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা এসে শুক্রবারের মধ্যেই শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করবেন বলে জানিয়েছেন। এছাড়া কারখানা এলাকায় যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর