× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

মুক্তিযোদ্ধার কন্যার সংবাদ সম্মেলন

বাংলারজমিন

মেহেরপুর প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ৮:২২

চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পশ্চিমাঞ্চল পত্রিকায় গত ৮ই আগস্ট ১৯ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহারবাটি গ্রামের প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা বাদল মালিথার কন্যা পান্না খাতুন। গতকাল সকালে নিজ বাসভবনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পান্না খাতুন বলেন, তার পিতা অসুস্থ হয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হলে সেখানে পরিচয় ঘটে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার সদরপুরের জনৈক জমিরের সঙ্গে। পরে জমির প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে বিয়ে করেন পান্নাকে। তার পূর্বের স্ত্রী ও সন্তান আছে তা গোপন করে বিয়ে করায় বাধ্য হয়ে পান্না তার পিতার বাড়ি সাহারবাটিতে বসবাস করছিল। বর্তমানে পান্নার কোলে চার বছরের এক পুত্র সন্তান রয়েছে। লিখিত বক্তব্যে আরো জানানো হয়, স্ত্রী ও সন্তানের কোনো দেখাশোনা না করে জমির শ্বশুর বাদল মালিথার ভাতার টাকা জোর পূর্বক ছিনিয়ে নিতো। তাছাড়া জমির মাদক ব্যবসা ও সেবন করতো।
মাদকের টাকার জন্য সে স্ত্রী পান্নাকে নানাভাবে নির্যাতন করতো। এমতাবস্থায় পান্না স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে একটি অভিযোগ দায়ের করে। ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন বারবার জমির উদ্দীনকে হাজির হতে নোটিশ প্রদান করলেও হাজির হতো না। অবশেষে ইউপি চেয়ারম্যান আদালতের আশ্রয় নেয়ার জন্য পান্নাকে পরামর্শ ও লিখিত দেন। গরিব ও অসহায় হওয়ায় আদালতে মামলা না করে পান্না গত জুলাই মাসের ২৫ তারিখে স্বামী জমির উদ্দীনকে তালাক প্রদান করেন। এদিকে জমির উদ্দীন স্ত্রীর প্রতি রাগান্বিত হয়ে দৈনিক পশ্চিমাঞ্চল পত্রিকার সাংবাদিককে দিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করান। প্রতিবেদনে পান্না পরোকীয়ায় লিপ্ত ও জমিরের অর্থ আত্মসাৎ করেছে বলে জানানো হয় যা অপমানজনক। ওই সাংবাদিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এ সংবাদ প্রকাশ করেছেন বলে দাবি পান্নার। তিনি এর সুবিচার দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় ইউপি সদস্য গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন প্রিণ্ট ও ইলেক্ট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর