× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার

নিজ শহরে হামলার শিকার ভিপি নূর

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৪ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৪:৪২

একের পর এক বিভিন্নস্থানে হামলার শিকার হওয়া ডাকসু ভিপি নূর এবার হামলার শিকার হলেন নিজ শহরে পটুয়াখালীর গলাচিপায়। আজ সকাল ১১টার দিকে গলাচিপার উলানিয়া বাজারে এ হামলার শিকার হন তিনি।
স্থানীয়রা জানান, গলাচিপার চরবিশ্বাস ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে ঈদুল আজহা উদযাপন করেন ভিপি নুর। আজ সকালে দশমিনা উপজেলার এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তিনি। উলানিয়াবাজার থেকে মোটরসাইকেলে করে যাওয়ার পথে কিছু দুষ্কৃতকারী ভিপি নুরের মোটরসাইকেল আটক করে। এ সময় তাকে একটি স্টিলের দোকানে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ফাঁড়ি থেকে পুলিশ সদস্যরা এসে তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

হামলার সময় নুরের সঙ্গে ছিলেন হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাহিম। তিনি গণমাধ্যমকে জানান, হামলার একপর্যায়ে নুরকে ওই দোকানে প্রথমে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।
খবর পেয়ে পটুয়াখালীর সার্কেল এসপি মু. হাফিজুর রহমান ও গলাচিপা থানার ওসি আকতার হোসেন তাকে উদ্ধার করে অ্যাম্বুলেন্সে করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে তার প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

স্থানীয়দের ধারণা, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মীরা ভিপি নুরের ওপর এ হামলা চালিয়েছে।
গলাচিপা থানার ওসি আকতার হোসেন নুরের ওপর হামলার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কিছুসংখ্যক দুষ্কৃতকারী এ হামলা চালিয়েছে। তবে কে বা কারা হামলা চালিয়েছে এ বিষয়ে ওসি বিস্তারিত কিছু জানাতে পারেননি।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বগুড়াসহ কয়েকটি স্থানে ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
রিপন
১৪ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৯:৩৩

ছাত্র! মূল কাজ - লেখাপড়া নাই, ক্লাশ নাই, সমাজসচেতনতাতাড়িত আন্দোলন তো নাই-ই। অনুষ্ঠান করে বেড়ায়, ভিপি তো নয়, যেন মিন্তি মিনি স্টার হয়ে গেছে। আর খালি মাইর খায়। সংবাদপতেো খবর হয়ে আসে বীরবেশে নয়, মাইর খেয়ে শুয়ে থাকা লম্বা ভূত হয়ে। দেশের ছাত্রসমাজকে কোন্ দিকে নেতৃত্ব দেবে এরা? মাইর খাওয়ার দিকে, না রুখে দ্রোহী হয়ে দাঁড়িয়ে জালিমগোষ্ঠীকে উল্টো ক্যাঁচকা মাইর লাগানোর দিকে? গৌরবময় ঐতিহ্যের ডাকসুর কলংক এরা, - এইসব ব্যাটারি ডাউন ক্লাউনরা!

অন্যান্য খবর