× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

ওয়াটলিংয়ের ব্যাটে কিউইদের লড়াই

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৮:৩৫

চলমান গল টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার অফস্পিনার আকিলা ধনাঞ্জয়ার স্পিনে কাবু হয়েছিল নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় ইনিংসেও কিউই ব্যাটসম্যানরা মুখ থুবড়ে পড়লো লঙ্কান স্পিনে। এবার দৃশ্যপটে লাসিথ এম্বুলদেনিয়া। গতকাল তৃতীয় দিনে বাঁহাতি এই স্পিনার নেন ৪ উইকেট। তবে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বিজে ওয়াটলিংয়ের বীরত্বে লড়াইয়ে আছে কিউইরা। দিন শেষে ৭ উইকেটে ১৯৭ রান সংগ্রহ করেছে নিউজিল্যান্ড। ওয়াটলিং অপরাজিত আছেন ৬৩ রানে। ১৩৮ বলের লড়াকু ইনিংসটিতে মাত্র ৫টি বাউন্ডারি মেরেছেন তিনি। তাতে দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১৭৭ রানে এগিয়ে আছে কেন উইলিয়ামসনের দল। আলোকস্বল্পতার কারণে নির্ধারিত সময়ের আগেই খেলা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে আজ ১৫ মিনিট আগে চর্তুথ দিনের খেলা শুরু হবে।
শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১৮ রানে পিছিয়ে থেকে গতকাল দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে নিউজিল্যান্ড। দলীয় ৮ রানেই ফেরেন জিত রাভাল (৪)। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার বলে দিমুথ কারুণারত্নের হাতে ক্যাচ দেন রাভাল। এরপর ৫ রানের ব্যবধানে দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান উইলিয়ামসন (৪) ও রস টেইলরকে (৩) হারায় নিউজিল্যান্ড। দুজনকেই ফেরান এম্বুলদেনিয়া। চতুর্থ উইকেটে প্রতিরোধের আভাস দিয়েছিলেন টম ল্যাথাম-হেনরি নিকোলস। তবে দলীয় ৮১ রানে ল্যাথামকে (৪৫) তুলে নিয়ে কিউইদের ওপর চাপ বাড়ান আকিলা ধনাঞ্জয়া। হেনরি নিকোলসও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ২৬ রান করে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন নিকোলস। এরপর এম্বুলদেনিয়ার বলে মিলেচ স্যান্টনার (১২) ফিরলে নিউজিল্যান্ডের স্কোর দাঁড়ায় ৪৯.৩ ওভারে ১২৬/৬। সেখান থেকে দলকে টানেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ওয়াটলিং। সপ্তম উইকেটে পেসার টিম সাউদির সঙ্গে গড়েন ৫৪ রানের মূল্যবান জুটি। দলীয় ১৭৮ রানে সাউদির বিদায়ে (২৩) ভাঙে এ জুটি। তার উইকেটটিও গেছে এম্বুলদেনিয়ার পকেটে। এরপর উইলিয়াম সমারভিলকে (৫*) নিয়ে এগিয়ে যেতে থাকেন ওয়াটলিং। আজ স্কোরবোর্ডে আরো কিছু রান করার লক্ষ্য নিয়ে নামবেন তিনি।
এর আগে প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের ২৪৯ রানের জবাবে শ্রীলঙ্কা ২৬৭ রান তুলে থামে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ট্রেন্ট বোল্ট ২টি, উইলিয়াম সমারভিল ৩টি ও অ্যাজাজ প্যাটেল ৫ উইকেট নেন। কিউইদের চেয়ে ২২ রানে পিছিয়ে থেকে ৭ উইকেটে ২২৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করেছিল স্বাগতিকরা। নিরোশান ডিকওয়েলা ৩৯ ও সুরাঙ্গা লাকমাল ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ১৬১ রানে সপ্তম উইকেট পড়ে যাওয়ার পর এই দুজন টানেন দলকে। লাকমালকে বোল্ড করে শেষ পর্যন্ত ৮১ রানে এ জুটি ভাঙেন ট্রেন্ট বোল্ট। প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট নেয়ার পর ব্যাট হাতে ৯৮ বলে ৪০ রানের দারুণ এক ইনিংস উপহার দেন লাকমাল। দলীয় ২৬২ রানে আউট হন ডিকওয়েলা। ১০৯ বলে মাত্র ৩ বাউন্ডারিতে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬১ রান করেন তিনি। এরপর এম্বুলদেনিয়াকে ফিরিয়ে লঙ্কানদের ইনিংসের ইতি টানেন সমারভিল।


অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর