× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

জৈন্তাপুরে দাওয়াত দিয়ে এনে ধর্ষণ

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৭:৪৫

সিলেটের জৈন্তাপুরে ধর্মের বোনকে দাওয়াত দিয়ে এনে ধর্ষণের অভিযোগে যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, উপজেলার শুকইনপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে সেজুল আহমদ সিলেট শহরের পীর মহল্লার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের স্ত্রীর সঙ্গে ভাইবোনের মধুর সম্পর্ক গড়ে তোলে। এই সুবাদে আনোয়ার হোসেনের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে সেজুল আহমদ ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠার কারণে বাড়িতে দাওয়াত করে। নারীলোভী সেজুল আহমদের বিশ্বস্ততার সুযোগে দাওয়াত করে শুকইনপুর গ্রামে নিয়ে আসে ওই মহিলাকে। নিজ বাড়িতে না রেখে বাড়ির পার্শ্ববর্তী নির্মাণাধীন বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে আটকে রেখে নারীলোভী প্রতারক সেজুল আহমদ বেশ কয়েক বার ধর্ষণ করে। এদিকে, ভিকটিম প্রতারণার শিকার হয়ে কৌশলে পুলিশকে ফোন করে। গত শনিবার ভোররাতে সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের একটি টিম নির্মাণাধীন বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে নারীলোভী সেজুল আহমদকে আটক করে এবং ওই ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা নিজেই বাদী হয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানায় লিখিত এজাহার দিলে পুলিশ এজাহারটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করে পুলিশ। ধর্ষক সেজুলকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওসি শ্যামল বণিক জানিয়েছেন, সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে ধর্ষককে আটক করি। মামলা দায়েরপূর্বক তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর