× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

রামগঞ্জে অপহরণের ২৮ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী

বাংলারজমিন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি | ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৮:২২

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে তামান্না আক্তার সোনিয়া নামের এক স্কুলছাত্রী অপহরণের ২৮ দিনেও উদ্ধার হয়নি। অপহৃতা সোনিয়া উপজেলার শাহজকি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। গত ১০ই আগস্ট সকালে বাড়ি থেকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা মুখোশধারীরা ওই ছাত্রীকে মাইক্রোগাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। সোনিয়া আক্তার রামগঞ্জ উপজেলার ৮নং করপাড়া ইউনিয়নের হাফেজ মিঝি বাড়ির মো. সালাউদ্দিনের মেয়ে। সৃষ্ট ঘটনায় অপহৃতার বাবা সালাউদ্দিন গত ১৮ই আগস্ট ২০১৯ বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নোয়াখালী জেলার সুদারাম থানার সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ জহির মেম্বারসহ ৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা নং-১২ করা হয়েছে। মামলার সূত্র ও ছাত্রীর পিতা সালাউদ্দিন জানান, প্রতিদিনের ন্যায় ১০ই আগস্ট ২০১৯ইং সোনিয়া আক্তার শাহজকি উচ্চ বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে শ্যামপুর বাজারের পার্শ্ববর্তী রাস্তা থেকে নোয়াখালীর সুদারাম থানার রামহরি তালুক গ্রামের মহিউদ্দিন মনিরের ছেলে শিহাব উদ্দিন রাজু ও তার বন্ধু মো. রাসেলের নেতৃত্বে মাইক্রোগাড়িতে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। ছাত্রীর পিতা সালাউদ্দিন আরো জানান, রাজু ও রাসেলের বিরুদ্ধে নোয়াখালীর সুদারাম থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।
এ ছাড়াও নোয়াখালীর রামহরি তালুক (খলিফার হাট) এলাকার সাবেক মেম্বার মো. জহির উদ্দিনের নেতৃত্বেই রাজু ও রাসেল এ অপহরণের ঘটনা ঘটিয়েছেন। ওই মেম্বারের বিরুদ্ধে নোয়াখারীর সুদারাম থানায় যুবলীগ নেতা আঃ মতিন হত্যা চেষ্টা মামলা, নারী নির্যাতন, চাঁদাবাজি ও গরু চুরিসহ একাধিক মামলার আসামি।
রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনাচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও এজহারভুক্ত আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর