× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

কাস্টমারের লাথিতে দোকান মালিকের ভাইয়ের মৃত্যু

বাংলারজমিন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি | ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৮:২৩

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে কাস্টমারের লাথিতে এক মোবাইল দোকান মালিকের ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত দশটার দিকে রাণীশংকৈল পৌর শহরের দাসপাড়া সংলগ্ন মার্কেটে এ ঘটনার সূত্রপাত। নিহত ব্যক্তির নাম মানিকচন্দ্র দাস। এ ঘটনায় পুলিশ রাতভর খোঁজাখুঁজি করে রোববার ভোরের দিকে মূল অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেনসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।  পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি রাণীশংকৈল পৌর শহরের দাসপাড়া সংলগ্ন রুস্তম মার্কেটে ভূবদেব চন্দ্র দাশের মোবাইল দোকান থেকে উপজেলার মৃত আইনুল হকের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪০) একটি  মোবাইল ফোন কেনেন। কিন্তু মোবাইলে ঠিকমতো  চার্জ না হওয়ার কারণে তিনি শনিবার রাত দশটার দিকে তার ফোনে চার্জ না হওয়ার বিষয়টি জানালে এ সময় দোকান মালিক তার চার্জার দিয়ে পরীক্ষা করে জানান, চার্জ ঠিকই আছে। কিন্তু আনোয়ার হোসেন দোকানদারের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট না হলে এ নিয়ে দোকানদার ভূদেবের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। এদিকে দোকান মালিকের বড়ভাই মানিকচন্দ্র দাশ ঘটনাস্থলে এসে কাস্টমার আনোয়ারকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করলে তিনি মানিকচন্দ্রকে লাথি মারেন। এতে ঘটনাস্থলেই পড়ে গিয়ে জ্ঞান হারান মানিক। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রংপুরে রেফার্ড করেন।  অ্যাম্বুলেন্স যোগে যাওয়ার পথে রাণীশংকৈল এর গোগর চৌরাস্তা মোড়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন মানিক চন্দ্র দাশ। এ ঘটনায় ওসি তদন্ত খায়রুল আনাম ডনের নেতৃত্বে থানা পুলিশ রাতভর অভিযান চালিয়ে রোববার ভোরের দিকে পীরগঞ্জ উপজেলা থেকে আনোয়ার হোসেন ও জিয়াউর রহমান জিয়াকে গ্রেপ্তার করে। রোববার সকালে নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর