× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
শেরপুরে বাল্যবিবাহ

কনের পিতা কারাগারে

বাংলারজমিন

শেরপুর প্রতিনিধি | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৮:৩৫

শেরপুরের নকলায় ৭ম শ্রেণিপড়ুয়া অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দেয়ার অপরাধে কনের বাবাকে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার গণপদ্দী ইউনিয়নের বাড়ইকান্দি গ্রামের হাজী জমির উদ্দিন দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দেয়ার অপরাধে তার পিতা রফিকুল ইসলামকে ওই দণ্ডাদেশ দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান। দণ্ডপ্রাপ্ত রফিকুল ইসলাম স্থানীয় মৃত আবুল হোসেনের পুত্র। গতকাল দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান জানান, রফিকুল ইসলাম তার অপ্রাপ্তবয়স্ক ও মাদ্রাসাপড়ুয়া কন্যাকে পার্শ্ববর্তী ছত্রকোনা এলাকার কোনো এক ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিচ্ছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বিয়ে বাড়িতে হাজির হয়। ওইসময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে বরপক্ষ কৌশলে পালিয়ে যায়। তবে বিয়ের সকল কার্যক্রম শেষ করে ফেলায় এবং বিয়ে বন্ধ করার কোনো সুযোগ না থাকায় কনের পিতা রফিকুল ইসলামকে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন শাহ জানান, গতকাল দুপুরে দণ্ডপ্রাপ্ত পিতা রফিকুল ইসলামকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর