× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

কোনো স্বৈরাচারই বেশি দিন টিকতে পারে না: রব

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৫৮

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেছেন, গণতন্ত্র উন্নয়নের পূর্বশর্ত। উন্নয়ন টিকিয়ে রাখতে হলে গণতন্ত্রকে টিকিয়ে রাখতে হবে। সারা পৃথিবীতে কোথাও ভোটের আগের রাতে নির্বাচন হয়ে গেছে তা জানা নেই। পৃথিবীর সব দেশে ভোট হয় নির্বাচনের দিন আর আমাদের দেশের ভোট হয়েছে নির্বাচনের আগের রাতে। অতীতে কোন স্বৈরাচারী সরকার বেশি দিন টিকতে পারেনি, এখনও পারবে না। গতকাল রাজধানীর তোপখানাস্থ শিশুকল্যাণ মিলনায়তনে নাগরিক ঐক্য আয়োজিত বিশ্ব গণতন্ত্র দিবস ও আমরা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। আসম আবদুর রব বলেন, বাকশাল বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করেছে ও বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের সহযোগিতা করেছে। এখন আবার অঘোষিত বাকশাল তৈরি হয়ে গেছে।
কেউ মুখ খুলতে পারবে না, মানুষের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ভোট ডাকাতি করে জোর করে ক্ষমতায় বসে আছে তাদের ছাত্র সংগঠনও মনে করছে চুরি-ডাকাতি যদি সরকার করতে পারে তবে আমাদের সমস্যা কোথায়? নির্বাচনের আরপিও অনুযায়ী কোন রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠন থাকতে পারবে না এটা যদি বিএনপির বেলায় প্রযোজ্য হয় তাহলে আপনাদের বেলায় কেন হবে না? রব বলেন, অতীতেও বাংলাদেশে স্বৈরাচাররা বেশিদিন ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি। ইনশাআল্লাহ এবারও স্বৈরাচারী সরকার বেশিদিন টিকে থাকতে পারবে না। জনগণ আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে এ সরকারের পতন ঘটাবেই। নাগরিক ঐক্যের আহ্‌বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকি, নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এসএম আকরাম, গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
sharifuzzaman
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৪৫

শতভাগ সত্যি কথা

Kazi
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৭:৩৯

Your political career is spoiled long time ago and you are responsible for this. So, we cannot accept you as a politician.

অন্যান্য খবর