× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

‘বয়ঃসন্ধিকালে শারীরিক সমস্যা লজ্জার বিষয় নয়’

বাংলারজমিন

বগুড়া প্রতিনিধি | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৭:২২

‘বয়ঃসন্ধিকাল কিশোরীদের শারীরিক নানা সমস্যা দেখা দেয়। এই সময় কোনো সমস্যাকেই লুকানো যাবে না। এসব সমস্যা লজ্জার বিষয় নয়। সঠিকভাবে জেনে বুঝে চললে শরীর স্বাস্থ্য ভালো রাখা যায়। আজকে যারা কিশোরী আছ ভবিষ্যতে তারাই একেকজন মা। সংগত কারণেই ভবিষ্যৎ মায়েদের সুস্থভাবে বেড়ে উঠতে হবে’। বগুড়া সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্বাস্থ্য সচেতনতাবিষয়ক সেমিনারে বক্তব্যে এসব কথা বলেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বেল্লাল হোসেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে সেমিনারটি অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বেল্লাল হোসেন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। শরীর স্বাস্থ্য ভালো থাকলে মন ভালো থাকে। মন ভালো থাকলে সব কাজ ঠিকমতো করা যায়। লেখাপড়ায় মন বসে। কাজেই নিজেদের সুস্থ রাখতে নিজেদেরকেই সচেতন হতে হবে, জানতে হবে। সে অনুযায়ী কাজ করতে হবে। অনুষ্ঠানে তিনি কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য ফার্স্ট এইড বক্সের উদ্বোধন করেন। প্রাথমিক চিকিৎসার যাবতীয় ওষুধ সেখানে পাবে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া স্যানিটারি ন্যাপকিনেরও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেমিনারের মুখ্য আলোচক ছিলেন সরকারি ইনফরমেশন অব হেলথ টেকনোলজির অবসরপ্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপক ডা. মাজেদা হক। তিনি কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বয়ঃসন্ধিকাল থেকেই মেয়েদের শারীরিক পরিবর্তন ঘটতে শুরু করে। একান্তই মেয়েদের কিছু শারীরিক সমস্যা হয় যেগুলো আসলে লুকিয়ে রেখে লজ্জা পাওয়ার কোনো বিষয় না। ঋতুকালীন সময়ে কোনো সমস্যা হলে অবশ্যই মা অথবা বড়বোন বা বয়স্ক আত্মীয়ের সঙ্গে কথা বলতে হবে। দেশে এখনো যথাযথভাবে স্যানিটারি ন্যাপকিনের ব্যবহার হয় না। কারণ, দারিদ্রতা। যদিও ঋতুকালীন মেয়েদের স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটারি ন্যাপকিনই ব্যবহার করা দরকার। অর্থের অভাবে তা হয়ে ওঠে না সবার ক্ষেত্রে। এই সময়টায় অবশ্যই বিকল্প ব্যবস্থাটি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। শুধু এই ক্ষেত্রে নয় সব ক্ষেত্রেই আমাদের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। অপরিষ্কার বা অপরিচ্ছন্নতার মধ্যে হাজার হাজার রোগজীবাণু বসবাস করে। অপরিচ্ছন্নতা মানে নিজেদের ক্ষতি করা। অনুষ্ঠানটির সভপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য সচেতনতাবিষয়ক কমিটির আহ্বায়ক সাবিরা সুলতানা। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গোলজার হোসেন, বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক দেবদুলাল দাস, উপস্থাপনা করেন বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সুলতানা নাজরিন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর