× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

সেই ডি মারিয়ার কাছে হারলো রিয়াল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৩৯

২০১৩ সালে রিয়াল মাদ্রিদকে বিখ্যাত ‘লা ডেসিমা’ জেতাতে অনবদ্য ভূমিকা রেখেছিলেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আর বুধবার সেই ডি মারিয়ার কাছেই হারলো রিয়াল। ডি মারিয়ার জোড়া গোলে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে রিয়ালকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। ঘরের মাঠে পিএসজির আক্রমণভাগের সেরা তিন তারকা এদিন খেলেননি। কিলিয়ান এমবাপ্পে ও এডিনসন কাভানি খেলতে পারেননি ফিটনেসের কারণে। আর নেইমার রয়েছেন উয়েফার ২ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞায়। এই ত্রয়ীর অনুপস্থিতিতে দুই আর্জেন্টাইন ডি মারিয়া-মাউরো ইকার্দি  আর পাবলো সারাবিয়াকে নিয়ে আক্রমভাগ সাজান পিএসজি কোচ টমাস টুকেল। অন্যদিকে রিয়ালের আক্রমণভাগে ছিলেন গ্যারেথ বেল, করিম বেনজেমা আর নতুন সাইনিং ইডেন হ্যাজার্ড।
পার্ক ডি প্রিন্সেসে নেইমারদের অভাব বুঝতেই দেননি ডি মারিয়া। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে নিজের শততম ম্যাচ খেলতে নেমে ১৪তম মিনিটে পিএসজিকে প্রথম গোল এনে দেন তিনি। তার গোলে অ্যাসিস্ট করেন হুয়ান বার্নাট। এরপর ৩৩তম মিনিটে ইদ্রিস গুইয়ের সহায়তায় ব্যবধান দ্বিগুণ করে ডি মারিয়া। বিরতির আগে গোল করেছিলেন রিয়ালের গ্যারেথ বেল। কিন্তু হ্যান্ডবলের কারণে তার গোলটি বাতিল করে দেয় ভিএআর। দ্বিতীয়ার্ধেও আর জালের দিশা পায়নি রিয়াল। উল্টো যোগ করা সময়ে জিদান শিষ্যদের দুর্দশা বাড়ান বেলজিক তারকা টমাস মুনিয়ের। তাতে চার ম্যাচ পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে রিয়ালের বিপক্ষে জয় দেখলো পিএসজি।
পিএসজির বিপক্ষে হারটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোনো মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রিয়ালের সবচেয়ে বড় পরাজয়। এর আগে ২০০৪ সালে বায়ার লেভারকুসেন ও ২০০৫ সালে অলিম্পিক লিঁওর কাছেও ৩-০ গোলে পরাজিত হয়েছিল লস-ব্লাঙ্কসরা। আর রিয়ালের কোচ হিসেবে ২০১৩ সালে হোসে মরিনহোর পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে টানা দুই হার দেখলেন জিনেদিন জিদান। গত মৌসুমের শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে আয়াক্সের কাছে হেরে বাদ পড়েছিল তার দল। পিএসজির বিপক্ষে ৯০ মিনিটে অন-টার্গেটে কোনো শট নিতে পারেননি রিয়ালের খেলোয়াড়রা। ১৫ বছর আর ১২৭ ম্যাচ পর এমন ঘটলো এমন ঘটনা।   
এদিন সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে পিএসজিকে জিতিয়ে দারুণ এক অর্জনে নাম লিখিয়েছেন ডি মারিয়া। মারিও জারদেল ও আন্দ্রে শেভচেঙ্কোর পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে রিয়াল ও বার্সেলোনার বিপক্ষে অন্তত দুই গোল করা তৃতীয় খেলোয়াড় ডি মারিয়া। ম্যাচের পর আর্জেন্টাইন উইঙ্গারকে প্রশংসায় ভাসান পিএসজির জার্মান কোচ টুকেল। তিনি বলেন, ‘ডি মারিয়া যে এমন পারফরম্যান্স করতে পারে তা এক বছর ধরেই দেখাচ্ছে সে। ওর বাঁ-পা তো অসাধারণ।’
রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান টানা তিন মৌসুম রিয়ালের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিতেছেন। কিন্তু রিয়ালে নিজের কোচিং ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় কিস্তির শুরুতেই ধাক্কা। তবে জিদান ইতিবাচক। তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই এক নৌকার যাত্রী। যখন হারি একসঙ্গে হারি। জিতলে একসঙ্গে জিতি। পরাজয় হজম করা কঠিন। কিন্তু এখন আমাদের সামনে সেভিয়া ম্যাচ  (লা লিগা)। ওটাতেই নজর দিচ্ছি।’ এদিন ‘এ’ গ্রুপের অপর ম্যাচে ক্লাব ব্রুজে-গ্যালাতাসারে গোলশূন্য ড্র করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর