× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

‘পাকিস্তান সফর’ ইস্যুতে অস্ট্রেলিয়ার শঙ্কা ও আশা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, ৮:৩৪

২০০৯ সাল পাকিস্তানে বন্ধ রয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। আর অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল সবশেষ পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল দীর্ঘ ২১ বছর আগে। নিজ দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ইতিমধ্যে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে শ্রীলঙ্কা। অস্ট্রেলিয়া দলের পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু? পাকিস্তানে সফররত শীর্ষ অজি ক্রিকেট কর্মকর্তা এমন প্রশ্নের উত্তরে শোনালেন শঙ্কা ও আশার কথা। ইসলামাবাদে  পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বৈঠক শেষে
অজি বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস বলেন, সব সঠিক পথেই এগোচ্ছে। কিন্তু এখানে সশস্ত্র নিরাপত্তা বাহিনীর প্রহরায় চলাফেরা করতে হয় এবং এখানে এমন কড়া নিরাপত্তা এখনও দরকার। দীর্ঘ এক দশকে প্রথমবার পাকিস্তান সফরে গেলেন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের কোনো প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।
আর ইসলামাবাদে সিএ নির্বাহী কেভিন রবার্টস বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার গুরুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। আমিও পাকিস্তানকে আগেও বলেছি, আমরাও চাই পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরুক। কিন্তু আমরা খেলোয়াড়দের ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারি না। এ জন্য  বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ গ্রহণ জারি রেখেছি আমরা। আগামী ক’বছরে আমরা ২০২২ সালে সফরের জন্য পরিকল্পনা করবো তবে এটা তড়িঘড়ি নয়, অনেক সতর্কতার সঙ্গে করবো।
২০০৯ সালে লাহোরে সফরকারী শ্রীলঙ্কা দলের বাসে বন্দুকধারী হামলার পর পাকিস্তানে আদতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে। ২০১৫ সালে প্রথম দেশ হিসেবে সংক্ষিপ্ত সপর পাকিস্তানে খেলতে যায় জিম্বাবুয়ে দল। এর পর পাকিস্তানে সংক্ষিপ্ত সফরে যায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। সেখানে বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলতে যান দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালও। সেবার টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তামিমের সঙ্গে খেলেন অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দলের অধিনায়ক টিম পেইন।  আগামী নভেম্বরেও পাকিস্তান সফরে  যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর