× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার

শায়েস্তাগঞ্জ রেল পার্কিংয়ে চলছে অবাধে টোলবাণিজ্য

বাংলারজমিন

শাহ্‌ মোস্তফা কামাল, শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে | ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৮:২৫

হবিগঞ্জ জেলাধীন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনটি বৃটিশ আমল থেকেই অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে যাত্রীসেবা দিয়ে করে আসছে। কয়েক বছর পূর্বে এ স্টেশনটি আধুনিক রূপে পুনর্নির্মাণ করা হয়। এতে করে এ স্টেশনের সৌর্ন্দয বৃদ্ধির পাশাপাশি পরিসর বৃদ্ধি ও যাত্রীরা আধুনিক সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। স্টেশনের পশ্চাদংশে যাত্রীদের ব্যবহারের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে সুপরিসর একটি গাড়ি পার্কিং। বাংলাদেশ রেলওয়ের স্টেট বিভাগ বিষয়াগুলো নিয়ন্ত্রণ ও তদারকি করেন। রেলওয়ের বৃহত্তর স্বার্থে স্টেট বিভাগ উল্লেখিত পার্কিংটি যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে ইজারা দিয়েছে। সংশ্লিষ্ট ইজারাদার যথাযথ নিয়ম না মেনে মনগড়া ইজারা আদায় করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ১লা অক্টোবর পাহাড়িকা ট্রেনে আগত ‘তানভীর’ নামে এক যাত্রী ক্ষোভের সঙ্গে জানান, তিনি স্টেশনে নামার পর তার গন্তব্যে যাওয়ার জন্য একটি টমটম (ব্যাটারি চালিত) ভাড়া করেন।
তিনি ওই টমটম নিয়ে পার্কিং এলাকায় প্রবেশ করা মাত্রই ইজারাদারের লোকজন টমটম চালকের কাছে ১০ টাকা টোল দাবি করে। তিনি (চালক) জানায়, ট্রেনের যাত্রী তাকে ভাড়া করে এখানে এনেছে টোল যাত্রীকে দিতে হবে। ওই যাত্রী টোল আদায়কারীকে জানান যে, এই পার্কিংয়ের টোল যাত্রীরা দেবে কেন? যারা এই পার্কিয়ে গাড়ি রেখে ব্যবসা করছেন তারা দেবে। প্রথমে টোল প্রদানে অপারগতা প্রকাশ করলেও পরে তিনি (যাত্রী) কথাকাটাকাটি না করে রশিদ গ্রহণের মাধ্যমে ১০ টাকা টোল প্রদান করেন। নিয়ম অনুযায়ী যাত্রী থেকে টোল আদায় করা সম্পূর্ণ বেআইনি ও অনৈতিক।
এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ রেল স্টেশনের মাস্টার সাইফুল ইসলামের সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানান, সংশ্লিষ্ট রেল পার্কিং ইজারা দেয়া ও তদারকি করা রেলওয়ে স্টেট বিভাগের দায়িত্ব। এ বিষয়টি ওনার এখতিয়ার বহির্ভূত। তিনি আরো জানান, তবে যাত্রীদের থেকে টোল আদায় করা নীতিমালা পরিপন্থি ও বে-আইনি। সাধারণ লোকজন মনে করেন, এ বিষয়ে স্থানীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের যথাযথ নজরদারি প্রয়োজন। পাশাপাশি, এ বিষয়টির প্রতি রেলওয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুনজর ও কার্যকর পদক্ষেপ কামনা করছেন ভুক্তভোগী যাত্রী সাধারণ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর