× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

দুই আইনজীবীকে বহিষ্কার করলো বিএনপি

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:২৫

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আশেক-এ-রসুলকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি। গতকাল বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সংগঠনবিরোধী তৎপরতার জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আশেক-এ-রসুলকে সংগঠনের সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এখন থেকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাংগঠনিক কার্যক্রমের সঙ্গে এ্যাডভোকেট আশেক-এ-রসুল এর কোন সম্পর্ক থাকবে না।

বিএনপি সূত্র বলছে, আশেকে-এ-রসুল নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গৃহবধুকে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী রুহুল আমিনের পক্ষে আইনজীবি হিসেবে কাজ করেন। মূলত এজন্যই তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার, বুয়েটছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এক আসামির পক্ষে আদালতে দাড়ানোর ঘটনায় জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্য অ্যাডভোকেট মোর্শেদা খাতুন শিল্পীকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি। ‘সংগঠনবিরোধী তৎপরতার’ দায়ে তাকে বহিষ্কারের কথা মঙ্গলবার রাত দেড়টায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বিএনপি নেত্রী মোর্শেদা ওই আসামিদের পক্ষে মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে দাড়ান বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা শুরু হয়।
মোর্শেদা সাংবাদিকদের বলেন, তিনি আবরার হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মোজাহিদের পক্ষে আদালতে দাঁড়িয়ে আদালতকে বলেছেন, এ ঘটনায় সে জড়িত না। ঘটনাচক্রে সিসিটিভির ফুটেজে তাকে দেখা গেছে।

বিএনপির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংগঠনবিরোধী তৎপরতার জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট মোর্শেদা খাতুন শিল্পীকে সংগঠনের সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এখন থেকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাংগঠনিক কার্যক্রমের সঙ্গে অ্যাডভোকেট মোর্শেদা খাতুন শিল্পীর কোনো সম্পর্ক থাকবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
নূর মোহাম্মদ
৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ১০:২৮

যেকোনো অপরাধই ঘৃণার, সব ধরনের অপরাধীই ঘৃণীত। কোনো অপরাধীর পক্ষ নেওয়াও অপরাধ।এটা সবার সর্বধা সর্ব ক্ষেত্রে বুঝতে হবে জানতে হবে এবং মানতে হবে।

Mollah Md. Nurul Isl
৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৮:২৩

Very good decision. I respect the decision.

রাহমান
৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৭:১৪

এইনা আদর্শের নীতির দল ভাল পদক্ষেপ

Kazi
৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ১:৩৫

অপরাধীদের আইনী সহায়তা দান সব আইনজীবী বন্ধ করলে অপরাধ শুন্যের কোটায় নামবে দ্রুত। অপরাধীরাও উপলব্ধি করবে সবাই তাদের বয়কট করছে। ভবিষ্যতে কেউ অপরাধ করার সাহস পাবে না। We appreciate decision of BNP. It is the best decision ever BNP made.

অন্যান্য খবর