× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার
আলাপন

‘বিপদ আপদে বোঝা যায় সম্পর্কগুলো কতটা শক্ত আমাদের’

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ১১:০৪

সব সময় তার মুখে থাকে প্রাণবন্ত হাসি। গত দুই মাসের বেশি সময় একটি সিনেমার কাজ নিয়ে ছোটাছুটি চলছে তার। অনেক দিন পর আবার চলচ্চিত্রে ফিরছেন। একটানা ৩৬ ঘন্টাও এক সেটে ঘাম ঝরিয়ে শুটিং করেছেন তিনি। আর এ সব কষ্টই দর্শকদের জন্য বলে জানালেন তিনি। বলছি অভিনয়শিল্পী সজলের কথা। বর্তমানে ‘জ্বীন’ ছবির কাজ করছেন দর্শকপ্রিয় এই অভিনেতা। জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজনায় এ ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন পূজা চেরি।
ছবিটি পরিচালনা করছেন নাদের চৌধুরী। আজ সকালে এ ছবির গানের শুটিংয়ে আবার ছুটতে হবে তাঁকে। সজল এ ছবির বিষয়ে বলেন, মাঝে অনেকদিন চলচ্চিত্র থেকে দূরে ছিলাম। এর মূল কারণ হলো গল্প। এমন গল্প আমাদের এখানে সচারচর কম দেখা যায়। ‘জ্বীন’ ছবিতে যে কয়েকটি চরিত্র আছে সে কয়েকটি চরিত্রের আলাদা আলাদা কন্ট্রিবিউশন আছে বলতে হবে। প্রতিটি চরিত্র এখানে গুরুত্বপূর্ণ। আর অনেকগুলো সম্পর্কের খেলা দেখা যাবে এখানে। সত্য ঘটনা নির্ভর একটি গল্প। গত আগস্ট মাসের শেষদিকে ঢাকার অদূরে সাভারের মধুমতি হাউজিংয়ে শুরু হয় এ ছবির শুটিং। এ ছবিটিতে প্রথমবারের মত জুটি বেঁধেছেন আব্দুন নূর সজল ও পূজা চেরি। এরইমধ্যে ছবিটির ৯০ ভাগ অংশের শুটিং শেষ হয়েছে। সাভার, মানিকগঞ্জের জমিদার বাড়িসহ এফডিসিতে এর চিত্রায়ন করা হয়। ছবিতে কি ধরনের চরিত্রে দর্শকরা সজলকে দেখতে পাবেন তা জানতে চাইলে এই তারকা বলেন, এ ছবিতে আমার চরিত্রের নাম রাফসান। এখানে একজন ফ্যাশন ফটোগ্রাফারের চরিত্রে অভিনয় করছি। তবে চরিত্র ও গল্পে ভিন্নতা রয়েছে। এখানে আমার বিপরীতে রয়েছে পূজা। অন্য ছবিতে যেমন প্রেম করে বিয়ে দেখানো হয়। এটাতে ভিন্নতা হলো বিয়ের পরে প্রেম দেখানো হয়েছে, আর সেটা দেখানোর মধ্যেও ভিন্নতা রয়েছে। অনেকগুলো সম্পর্ক গল্পে দেখা যাবে। আবার একটা সমস্যায় পড়ার পর কিভাবে সকলে এক হয়ে পাশে দাঁড়ায় সেটাও দর্শকরা এখানে দেখতে পাবেন। সত্যি বলতে বাস্তবেও বিপদ আপদে বোঝা যায় সম্পর্কগুলো কতটা শক্ত আমাদের। একটা সুন্দর সম্পর্কের গল্প আছে। পরিচালক নাদের ভাইয়ের সঙ্গে অনেকগুলো কাজ ছোটপর্দায় করা হয়েছে। তিনি একজন ভালো অভিনেতা ও পরিচালক। তিনি অভিনয়ের সময় অনেক কিছুর বিষয়ে গাইড করেছেন। এ ছবিতেও ভিন্নভাবে আমাকে উপস্থাপন করেছেন। অন্যভাবে অ্যাক্টিং করিয়েছেন এ ছবিতে। আর জাজ সব সময় ভিন্ন ধরনের সিনেমা উপহার দিয়ে এসেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ‘জ্বীন’ ছবিটি আসছে। এ ছবিটি দেখলে দর্শকরা ভিন্নতা খুঁজে পাবেন। আর পূজা চেরির সঙ্গে ছোটপর্দায় আগে কাজ হয়েছে সজলের। পুজা তখন শিশুশিল্পী ছিল। এবার তার সঙ্গে বড়পর্দায় কাজ করছেন। তাই এবারের অভিজ্ঞতা কেমন? জবাবে সজল বলেন, মজার একটা বিষয় হচ্ছে ছোটপর্দায় ও আমার সঙ্গে কাজ করেছে আগে। পূজার সঙ্গে বড়পর্দায় এটাই আমার প্রথম কাজ হচ্ছে। আর পূজা ছোটপর্দায় আগে ভালো অভিনয় করেছে, এখনও বড়পর্দায় এসেও ভালো অভিনয় করছে। অনেক অভিনয়শিল্পী মিলে একসঙ্গে সেটে কাজ করলে সবার সঙ্গে সবার বোঝাপড়ার বিষয়টি দেখা যায়, জানা যায়। সেটা আমাদের কাজ করার সময় বোঝা যাচ্ছিল। খুব ভালো কাজ করেছে পূজা। অন্যদিকে এ ছবিতে রোশান, মুনসহ অন্যরাও ভালো কাজ করেছে। টানা ৩৬ ঘন্টা আমরা কাজ করেছি এ ছবির সেটে। ছবির শেষ ক্লাইমেক্সে টানা শুটিং করেছি। আজ গানের শুটিংয়ে ঢাকার বাইরে যাব। আশা করি, ছবিটির কাহিনীর পাশাপাশি এ ছবির গানগুলো দর্শকরা পছন্দ করবেন। খুব শিগগিরই এ ছবিটি সেন্সরে যাবে। আর চলতি বছরই ‘জ্বীন’ ছবিটি মুক্তি দিতে চান এই নির্মাতা। আর এ ছবির মধ্য দিয়ে নতুন এক সজলকে দর্শকরা দেখতে পাবেন, এমনটিই জানিয়েছেন তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর