× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার
বিএসএফ নিহতের ঘটনায় টেলিগ্রাফের রিপোর্ট

বিব্রত ঢাকা, বিজিবির বিরুদ্ধে ভারতে মামলা, তদন্ত শুরু

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১১:৫৪

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী বিএসএফের একজন প্রধান কনস্টেবল বিজয় ভান সিংয়ের (৫১) মৃত্যু নিয়ে প্রভাবশালী ইংরেজি দ্য টেলিগ্রাফ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, শুক্রবার বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ঢাকায় বলেছেন, দুই দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে এবং এ বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা হয়েছে। কিন্তু বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ভারতে হত্যার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে বিএসএফ। এ নিয়ে দুই দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে দেখা দেয় উত্তেজনা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিব্রত ঢাকায় ক্ষমতাসীনরা।

এতে আরো বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার বিএসএফের প্রধান কনস্টেবল বিজয় ভান সিং’কে হত্যা করা হয়। আহত হন একজন কনস্টেবল। এ জন্য বিজিবিকে দায়ী করা হয়েছে।
বলা হয়েছে, বাংলাদেশী জলসীমায় অবস্থান করা ভারতীয় একজন জেলেকে মুক্ত করতে গিয়েছিলেন বিএসএফের সদস্যরা। এ সময় তাদের ওপর গুলি ছুড়েছে বিজিবি। এতে নিহত হয়েছেন বিজয় ভান সিং। এ ঘটনায় উভয় দেশের দুই বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক অকস্মাৎ তিক্ত হয়ে ওঠে। এ দুটি বাহিনীর মধ্যে সব সময়ই একটি উষ্ণ সম্পর্ক বিদ্যমান। টেলিগ্রাফ আরো লিখেছে, বিএসএফের বোটে গুলি করার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ঢাকায় আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এটি একটি অপ্রত্যাশিত ঘটনা। বিজিবি এবং বিএসএফের মধ্যে সম্পর্ক চমৎকার। আকস্মিক এই ঘটনায় আমরা সবাই শোকাহত।

টেলিগ্রাফ লিখেছে, ঢাকায় বাংলাদেশ সরকারের সূত্রগুলো বলেছেন, রাজশাহীর চারঘাট এলাকায় ওই গুলির ঘটনা ঘটে। এরপরই দুই দেশের সীমান্তে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। এ নিয়ে ঢাকায় ক্ষমতাসীনরা বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন। তারা সৃষ্ট উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা করেন। ওই রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ভারতীয় জেলেকে উদ্ধারে যেসব বিএসএফ সদস্য গিয়েছিলেন তারা দৃশ্যত বাংলাদেশী জলসীমায় প্রবেশ করেছিলেন। বিএসএফ দাবি করছে, কোনো উস্কানি ছাড়াই বিজিবি সদস্যরা প্রকাশ্যে গুলি ছুড়েছে। অন্যদিকে বিএসএফ সদস্যরা আন্তর্জাতিক নৌসীমানা বিষয়ক কনভেনশন লঙ্ঘন করেছেন বলে অভিযোগ বিজিবির। একই সঙ্গে বিজিবির অীভিযোগ, আটক জেলেকে জোরপূর্বক নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন বিএসএফ সদস্যরা। তখনই তাদের দিকে গুলি ছোড়া হয়। এ নিয়ে দুই দেশের সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসেন এবং আলাদা আলাদা তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নেন।

তবে মুর্শিদাবাদে পুলিশের সূত্রগুলো বলেছেন, বিএসএফের বামনাবাদ আউটপোস্টের ইনজার্চ কেসি মীনা জলাঙ্গি পুলিশ স্টেশনে বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মুর্শিদাবাদ পুলিশের প্রধান মুকেশ বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং এ মামলায় তদন্ত শুরু হয়েছে। মুর্শিদাবাদের সূত্রগুলো বলছেন, যদি বিএসএফ সদস্যরা সতর্কতা অবলম্বন করতেন তাহলে এই ট্রাজেডি এড়ানো সম্ভব হতো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র বলেছেন, বাংলাদেশে এখন ইলিশ মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। সেখানে সরকার কমিটি গঠন করেছে। তাদের কাজই হলো ইলিশ শিকার বন্ধ করা। তাদের ঘেরাওয়ের মধ্যে পড়েন ভারতীয় জেলেরা। এ সময়ে দু’জন পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। তখন বিএসএফ জওয়ানরা এগিয়ে যান এবং প্রবেশ করেন বাংলাদেশে ওই জেলেকে ফেরত নিতে। তবে এই বক্তব্যকে প্রত্যাখ্যান করেছেন মুর্শিদাবাদ বিএসএফের একজন কর্মকর্তা। তিনি বলেন, এই দাবি মিথ্যা। আমাদের একজন সহকর্মী মারা যাওয়ার পর বাংলাদেশ সত্য লুকানোর চেষ্টা করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
md.shahjahan
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১১:০৫

ফেলানী হত্যার বিচার এখনো করেনি ভারত সরকার, ভারতের বিএসএফ গুলি করে তার মধ্যে ঝুলিয়ে রাখে, প্রতিটা হত্যার জন্য বি এস এফ বিরুদ্ধে মামলা করা উচিত, বাংলাদেশের কতো মানুষ প্রতিনিয়ত মারছে বিএসএফ,ওসব দেখতে পায়না? চোরাচালান হিসেবে চালিয়ে দেওয়া হয়,

Md musa
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১০:৫৫

দেশের সম্পদ সেনারাই ভালো-মন্দ দেখার নৈতিক অধিকার আছে তাদের মধ্যে কোন উদ্দেশ্যমূলক দলীয় বিরোধীদলীয় ব্যক্তিগত স্বার্থে অতি প্রশংসা এবং সমালোচনা করা প্রয়োজন মনে করিনা আশা করি এই কথাগুলো সবাই আমলে নেবেন দেশের স্বার্থে বাংলাদেশ চিরজীবী হোক

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৯:৪৪

ঢাকার ক্ষমতাসীনরা কেন বিব্রত ! জাতি হিসেবে আমরা তো গর্বিত । ইন্ডিয়া মামলা করুক বা বাল ছিড়ুক তাতে কিছু যায় আসে না । কিন্তু প্রকৃতপক্ষে ভাবনার বিষয় একটাই, সেটা হলো নতজানু সরকার আমাদের এই সূর্য সন্তানদের চাকরি খেয়ে নেবে না তো ? আমরাতো প্রতিনিয়ত দাদাদের খুশি করেই চলেছি । অন্ততপক্ষে একবার সরকার মাথা উঁচু করে সত্যটা উচ্চারণ করুক, বিএসএফ অনুপ্রবেশকারী ছিল বিডিআর সমুচিত জবাব দিয়েছে ।

Md.Jahir uddin
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৯:২৫

বাংলার সাহসী সন্তানেরা যোগ্য জবাব দিয়েছে। প্রতিটা হত্যার জন্য বি এস এফ বিরুদ্ধে মামলা করা উচিত

shiblik
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১০:২৪

বিজিবি মনে হয়না বি এস এফ এর উপর গুলি চালাবে। Trump would call it a "fake news".

Abir Hossain
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৪:২০

বাংলাদেশের হাজার হাজার মানুষ ভারতের বিএসএফ গুলি করে তার মধ্যে ঝুলিয়ে রাখে আর ওদের মাত্র একজন সৈনিক হত্যা করার কারণে ওরা আমাদের বাংলাদেশ বিজিবি নামে মামলা দায়ের করেছে ভালো কথা ওরা আমাদের বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করার কারণে তাই হয়তোবা বাংলাদেশ বি জি বি ওদের সাথে খারাপ আচরণ করেনি কিন্তু ওরা প্রথমে গুলি চালিয়েছে বিধায় বাংলাদেশের বিজিবি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ওরা গুলি চালিয়েছে আর আমার বাংলার হাজার হাজার মানুষকে ওরা মেয়ের কাটা তার মধ্যে ঝুলিয়ে রাখে সেটা নামে তো আমাদের বাংলাদেশ সরকার কোন মামলা দায়ের করেনি তাদেরকে চোরাচালান হিসেবে চালিয়ে দেওয়া হয় তাহলে ওদের সামান্য একজন সৈনিক মারা গেছে ওরা আমাদের জলসীমায় প্রবেশ করেছে এটাই তোদের বড় অপরাধ চোরের মার বড় গলা তাই না

Tahsin Habib Rafi
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১:৪৯

বাংলাদেশের সীমানা লঙ্ঘন না করলে বিজিবি কখনোই গুলি চালাতো না। আর গুলিতো ওরাই প্রথমে চালিয়েছিলো। সীমানা লঙ্ঘন করেছে এটাইতো সবচেয়ে বড় অপরাধ। বাংলাদেশের কতো মানুষ প্রতিনিয়ত মারছে বিএসএফ।ওসব দেখতে পায়না?

Sayedahmmad
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১:১৪

গত দশ/বার বৎসর যাবত ভারতীয় সীমান্তবাহীনি যে শত শত বাংলাদেশী মানুষকে হত্যা করলো তার জন্য কি বাংলাদেশের আদালতে কোন মামলা হয়েছে? এবং বিজিবি কি কোন বাংলাদেশী মানুষকে উদ্ধারের জন্য ভারতের সীমানা বিতরে গিয়েছে?

আনসার উদ্দিনহিরন
১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ১১:২১

অতিত অভিজ্ঞ, ভারতীয় সিমারক্ষীরা সব সময়ই আক্রমনাত্মক থাকে।

অন্যান্য খবর