× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

বাগদাদির বড় বোনকে আটক করেছে তুরস্ক

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৫ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১০:৪২

জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের প্রাক্তন নেতা আবু বকর আল-বাগদাদির বড় বোনকে আটক করেছে তুরস্ক। সোমবার সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় শহর আযাযের নিকটে এক অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তুর্কি কর্মকর্তারা জানিয়েছে, বাগদাদির বোনের নাম রাসমিয়া আওয়াদ। তার বয়স ৬৫ বছর।
একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম তুর্কি কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে বলেছে, আওয়াদের কাছ থেকে আইএস সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। গত মাসের শেষের দিকে সিরিয়ার ইদলিবে মার্কিন-নেতৃত্বাধীন এক হামলার সময় গ্রেপ্তার এড়াতে আত্মহত্যা করেন বাগদাদি। তার মৃত্যুর একদিন পর অপর এক অভিযানে আইএসের মুখপাত্রেরও মৃত্যু হয়। বাগদাদির মৃত্যু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের জন্য জয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। হামলার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি।
তবে সমালোচকরা বলছে, বাগদাদির মৃত্যুতে আইএস ধ্বংস হয়ে যায়নি। গোষ্ঠীটি ইতিমধ্যে তাদের নতুন নেতা ও মুখপাত্রের নাম ঘোষণা করেছে। মালিতে সম্প্রতি এক জঙ্গি হামলা চালিয়ে অর্ধশত সেনা হত্যার দাবি করেছে। বিশ্বজুড়ে অনুসারীদের প্রতি হামলার আহ্বান জানিয়েছে।
এক তুর্কি কর্মকর্তা আওয়াদের গ্রেপ্তার নিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছে, বাগদাদির বড় বোনের কাছ থেকে আইএসের অভ্যন্তরীন কর্মকাণ্ড সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যেতে পারে। ব্যক্তি পর্যায়ে আওয়াদ সম্পর্কে তেমন বিস্তারিত তথ্য নেই সেনাদের কাছে।
বিবিসি জানিয়েছে, তারা স্বতন্ত্রভাবে গ্রেপ্তার হওয়া নারীর পরিচয় সনাক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছে। নিউ ইয়র্ক টাইমস অনুসারে, বাগদাদির পাঁচ ভাই ও বেশ কয়েকজন বোন রয়েছে। তবে তাদের মধ্যে কারা জীবিত রয়েছেন তা নিশ্চিত নয়।
তুর্কি কর্মকর্তাদের দেয়া ভাষ্য অনুসারে, সোমবার সিরিয়ার আলেপ্পো প্রদেশ থেকে আটক হন  আওয়াদ। সম্প্রতি দেশটিতে হামলা অভিযান চালিয়ে অঞ্চলটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে রেখেছে তুরস্ক। আওয়াদকে একটি ‘ট্রেইলার’এ (বাড়ি হিসেবে ব্যবহৃত গাড়ি) পাওয়া গেছে। সেখানে নিজের স্বামী, ননদ ও পাঁচ সন্তানসহ বাস করছিলেন তিনি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
তুর্কি কর্মকর্তারা আওয়াদকে গোপন, গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের ভাণ্ডার হিসেবে বিবেচনা করছে। তবে বিশেষজ্ঞরা তেমনটা প্রত্যাশা করছেন না। হাডসন ইন্সটিটিউটের সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ মাইক প্রেজেন্ট বলেন, আমার মনে হয় না আইএসের সম্ভাব্য কোনো হামলা পরিকল্পনা সম্পর্কে আওয়াদ জ্ঞাত থাকবেন। তবে দলটির চোরাচালানের পথগুলো সম্পর্কে তার ধারণা থাকতে পারে। তিনি হয়তো বাগদাদির ঘনিষ্ঠ চক্রের সদস্যদের সম্পর্কে তথ্য দিতে পারবেন। যারা ইরাক থেকে তাকে সিরিয়ায়া যেতে সাহায্য করেছে। এসব তথ্য মার্কিন ও অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থাকে আইএসের অভ্যন্তরীন কর্মকাণ্ড সম্পর্কে ধারণা দেবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর