× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

আশুলিয়ায় গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ৭ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:২৪

সাভারের আশুলিয়ায় চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে আশুলিয়ার বড় রাঙ্গামাটিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানার বড় রাঙ্গামাটিয়া এলাকার মাইন উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান (৩০) এবং ধামরাই থানার কামারপাড়া গ্রামের বদর উদ্দিনে ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩০)। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থানার ধারাবাড়ীসাহা নয়াবাজার গ্রামের ইউসুফ আলী তার স্ত্রীকে নিয়ে আশুলিয়া বড় রাঙ্গামাটি এলাকার সাগরের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। গত ৫ মাস ধরে তার স্ত্রী বেকার থাকায় বিভিন্ন কারখানায় চাকরির খোঁজ করছিলেন। এই সুযোগে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে চাকরি দেয়ার কথা বলে সোহেল (৩০) নামের এক ব্যক্তি তাকে পার্শ্ববর্তী মাইন উদ্দিনের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এসময় ওই বাড়ির একটি কক্ষে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন বাড়ির মালিকের ছেলে মিজান, দেলোয়ার ও আব্দুর রাজ্জাকসহ আরো তিন জন। একপর্যায়ে সোহেল ওই নারীকে তাদের কক্ষে ঢুকিয়ে দিয়ে বাহির থেকে দরজা আটকে দেয়।
এসময় ঘরের ভেতরে থাকা রাজ্জাক ওই নারীর মুখ চেপে ধরে রাখে এবং মিজান ও দেলায়ার পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এছাড়া ধর্ষণের ঘটনা অন্য কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ওই নারীকে ছেড়ে দেয়। বিষয়টি ভুক্তভোগী ওই নারী তার স্বামী ও আত্মীয়-স্বজনের কাছে খুলে বলার পর মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি জানিয়ে আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে রাতেই পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সাথে জড়িত দুই জনকে আটক করেন। পরবর্তীতে দুপুরে তাদেরকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বলেন, ভুক্তভোগী পোশাক শ্রমিক নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ৪ আসামির মধ্যে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর