× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

ধলাই নদীতে পলো বাওয়া উৎসব

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে | ৮ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৪১

 হৈ-হুল্লোড় আর আনন্দ-উৎসবে উদযাপিত হচ্ছে পলো বাওয়া উৎসব। শিকড়ের সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যের টানে প্রতি বছরই আয়োজন হয় ওই উৎসবের। কমলগঞ্জের ধলাই নদীতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী পলো দিয়ে মাছ ধরার উৎসব উদযাপিত হয়েছে। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় থেকে ধলাই নদীতে এই মৎস্য আহরণ শুরু হয়। এতে প্রায় ৩ শতাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করেন। কমলগঞ্জ পৌর এলাকার দক্ষিণ কুমড়াকাপন, আলেপুর, চন্ডিপুরসহ বিভিন্ন গ্রামের মানুষজন এতে অংশগ্রহণ করেন। শুরু হওয়া এই উৎসব আরো কিছু দিন চলবে। জানা গেল এখন শুষ্ক মৌসুম শুরু হওয়াতে কমলগঞ্জের খাল-বিল ও নদী নালার পানিও কমতে শুরু করেছে।
কমলগঞ্জের ফসলি মাঠগুলোতে এখনো আমন ধান থাকায় হয়ে উঠেনি শীতকালীন সবজি আবাদের উপযোগী। ফলে এ অঞ্চলের কৃষকের হাতে নেই তেমন কোন কাজ। এ অবসরে অল্প পানিতে মাছ শিকারের উৎসবে মেতে উঠেছে সবাই। ধলাই নদীর স্বল্প পানিতে এখন বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে দল বেঁধে মাছ ধরার দৃশ্য চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে পলো, উড়াল জাল, পেলেন জাল এসব দিয়েই মাছ শিকার করছেন মানুষরা। দলবদ্ধভাবে মাছ শিকারের এদৃশ্য দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন উৎসুক জনতা। উৎসবে অংশ নেয়া মানুষদের উৎসাহ দিতে হাতে তালি কিংবা  জোরে চিৎকার করে উৎসাহ প্রদান করছেন দর্শনার্থীরা। বড়দের পাশাপাশি ছোট  ছোট ছেলে-মেয়েরাও যে যার মতো করে মাছ ধরতে সহযোগিতা করছেন। নদীর স্বল্প পানিতে ৪০-৫০ জনের একটি দল একদিকে জাল নিয়ে সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন। আর অপরপ্রান্ত থেকে ৫০-৬০ জনের সারিবদ্ধ দল পলো চাপিয়ে মাছ ধরতে সামনের দিকে এগিয়ে আসে। এসময় পলোতে মাছ ধরা পড়ে। আর অনেক সময় বড় মাছগুলি লাফ ঝাঁপ শুরু করে। অপরূপ এই দৃশ্যটি মন কাড়ে সবার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর