× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

কক্সবাজার ভূমি অধিগ্রহণ শাখা থেকে ৫ সার্ভেয়ার ও ১ কানুনগো প্রত্যাহার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার থেকে | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৭:৫৮

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের ভূমি অধিগ্রহণ শাখায় কর্মরত ৫ সার্ভেয়ার ও ১ কানুনগোকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। নানা অনিয়ম ও দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগে তাদের কক্সবাজার জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে প্রত্যাহার করে বিভিন্ন জেলায় পদায়ন করা হয়েছে।
ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম চৌধুরী স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে এ তথ্য জানা গেছে। কিন্তু রকমারি অনিয়মে জড়িত ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক বহাল তবিয়তে রয়ে গেছেন। জেলা প্রশাসনের এলএ শাখায় সেবা প্রার্থীদের হয়রানিসহ নানা অভিযোগে প্রত্যাহার হওয়া সার্ভেয়াররা হচ্ছেন মাসুদ রানা, জহিরুল ইসলাম, সাদ্দাম হোসেন, কেশব লাল দে ও এমদাদুল হক। এদের মধ্যে কয়েকজনকে একটানা দুই বছর ধরে কক্সবাজারে কর্মরত থাকার কারণে প্রত্যাহার করা হয়েছে। অন্য এক আদেশে কানুনগো হাবিব উল্লাহ খানকে জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে প্রত্যাহার করে ভূমি মন্ত্রণালয়ের কল সেন্টারে কাজ করার নিমিত্তে সংযুক্ত করা হয়। একই আদেশে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে প্রেষণে থাকা নেপাল চন্দ্র ধরের প্রেষণ আদেশ বাতিল করে তাকে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে কর্মস্থল ন্যস্ত করা হয়।
ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. আশরাফুল আফসার জানান, যেসব সার্ভেয়ার ও কানুনগোকে প্রত্যাহার করা হয়েছে তারা সকলে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে প্রেষণে কর্মরত ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ থাকায় তাদের প্রত্যাহার করা হয়েছে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর