× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সরাইল-অরুয়াইল সড়ক সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন

বাংলারজমিন

মাহবুব খান বাবুল, সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকে | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:০০

সংস্কার কাজের বরাদ্দ সাড়ে ৭ কোটি টাকা। সময় ছিল ১২ মাস। কিন্তু ১৯ মাস পরও শেষ হয়নি। কিছু কাজ করেই ফেলে রেখেছেন ঠিকাদার। সড়কটির এখন বেহাল দশা। প্রতিদিনই বাড়ছে জন দুর্ভোগ। এটি সরাইলের আলোচিত সরাইল-অরুয়াইল সড়ক। বৃষ্টি হলে রূপ নেয় ধানের জমিতে।
কাজের সামগ্রী ও মান নিয়ে হচ্ছে নানা অভিযোগ। সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষও জানেন বিষয়গুলো। সড়কটির জন্য এখন ফুঁসে উঠেছেন এলাকার মানুষ। তাই সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবিতে গতকাল সকালে স্থানীয় অটোরিকশা স্ট্যান্ডে এলাকার সহস্রাধিক লোক মানববন্ধন করেছেন। ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- জেলা নাগরিক সমাজের সভাপতি সানা উল্লাহ ভূঁইয়া, ইউপি সদস্য রেজাউল, নূরুল আমীন প্রমুখ। বক্তারা বলেন, নির্ধারিত সময়ের তিন মাস পর কাজটি শুরু করেছেন ঠিকাদার। কাজে কোনো গতি নেই। আবার অনিয়ম। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সাধারণ লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে সরজমিন সড়কে নেমে পড়েন। হাত দিয়ে ধরে অনিয়মগুলো দেখিয়ে দেন। বিষয়টি আমলে নেন কর্তৃপক্ষ। থমকে দাঁড়ান ঠিকাদার। কাজের গতি আরো কমে যায়। গত কয়েকমাস ধরে কাজ বন্ধ। বারবার চেষ্টা করেও কোনো সুরাহা মিলছে না। রোদ উঠলে ধুলার রাজত্ব। আর বৃষ্টি হলে কাদা-পানিতে চাষযোগ্য জমি। যান ও মানুষ চলাচল অসম্ভব হয়ে পড়ে। দুই ইউনিয়নের মানুষের দুর্ভোগ শুধু বেড়েই চলছে।
 শিক্ষার্থী ও রোগীদের অবস্থা আরো কঠিন। এ অবস্থা চলতে পারে না। আমরাও মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত এ সড়কের সংস্কার কাজে এমন তালবাহানা কার ইশারায়? আমরা দ্রুত সড়কের সংস্কার শেষ করার দাবি জানাচ্ছি। এরপরও কালক্ষেপণ করে আরো কঠিন কর্মসূচি দিয়ে পড়ে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন এলাকাবাসী।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর