× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সুন্দরবনে অনুপ্রবেশে এক সপ্তাহে ১৮৩ জন আটক, ১২ ট্রলার জব্দ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:০৯

সুন্দরবনে অনুপ্রবেশের অভিযোগে বন বিভাগ পৃথক অভিযান চালিয়ে ১২টি ট্রলারসহ ১৮৩ জনকে আটক করেছে। ৫ই নভেম্বর সুন্দরবনের জয়মনি এলাকা থেকে ৩টি ট্রলারসহ ৬০ জন, ১১ই নভেম্বর ধানসিদ্ধির চর এলাকা থেকে ৪টি ট্রলারসহ ৪৯ জন, ১২ই নভেম্বর ১টি ট্রলারসহ ১৯ জন ও  ১৩ই নভেম্বর হাড়বাড়িয়া এলাকা থেকে ৪টি ট্রলারসহ ৫৫ জনকে আটক করা হয়েছে। পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মাহমুদুল হাসান জানান, রাসমেলা উপলক্ষে ৮ই নভেম্বর মাছ ধরার জেলের ছদ্মবেশে ট্রলারে করে অবৈধভাবে সুন্দরবনের দুবলার চরে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে ১১ই নভেম্বর বিকালে বনের ধানসিদ্ধির চর এলাকা থেকে ৪৯ জনকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের ব্যবহৃত ৪টি ট্রলার জব্দ করা হয়। একই অভিযোগে ১২ই নভেম্বর সকালে বনের ভদ্রা এলাকা থেকে ১টি ট্রলারসহ বনে অনুপ্রবেশকারী আরো ১৯ জনকে আটক করা হয়। তাদের বাড়ি মোংলার বুড়িরডাঙ্গা ও চিলা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা শাহিন কবির বলেন, ১১ই নভেম্বর আটক হওয়া ৪৯ জন কোনো পাস না নিয়েই অবৈধভাবে সুন্দরবনে অনুপ্রবেশ করেছে।
এ ছাড়া ১২ই নভেম্বর আটক ব্যক্তিদের মাছ ধরার পাস পারমিট থাকলেও দুবলার চরের রাস মেলায় যাওয়ার বৈধ কোনো অনুমতি ছিল না। আটক সবাইকে সিওআর মামলার আওতায় নগদ ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এর আগে গত ৫ই নভেম্বর সুন্দরবনের জয়মনি এলাকা থেকে ৩টি ট্রলারসহ ৬০ জনকে আটক করা হয়েছিল। তাদেরকে একই আইনে (সিওআর) জনপ্রতি নগদ ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা আদায় করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এই টিমটি রাসমেলা উপলক্ষে অ্যাডভান্স হিসেবে ৪ঠা নভেম্বর রাতে বনে ঢুকেছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর