× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

সীতাকুণ্ডে দুধের সঙ্গে মাদক মিশিয়ে যুবককে হত্যা, নারী আটক

বাংলারজমিন

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:১৯

 সীতাকুণ্ডে দুধের সঙ্গে মাদক মিশিয়ে যুবককে হত্যার অভিযোগে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল আটককৃত নারীকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। এঘটনায় নিহতের পিতা মো. দলু বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার সন্ধ্যা ৬টার সময় অটোরিকশা চালক আল-আমিন (২০)কে ভাটিয়ারী মসজিদ কলোনি এলাকায় আবুল কাসেমের ছেলে লোকমান হোসেন (২৫) ও ভাবী রেবেকা সুলতানা (২৪) তাদের ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে দুধের সঙ্গে মাদক মেশিয়ে জোরপূর্বক পান করায়। এরপর আলআমিন তার বাড়িতে গিয়ে মা-বাবার সাথে মাতলামি শুরু করে। একপর্যায়ে গলায় উড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে বিএসবিএ হাসপাতাল ও পরে চমেক হাসপাতালে নেয়ার পথেই মৃত্যুবরণ করে আল আমিন।
নিহতের বাড়ী ভোলা জেলার চরফ্যাশন এলাকায়। খবরটি চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা রেবেকা সুলতানা জ্যোতিকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। আটককৃত জ্যোতির বাড়ী চট্টগ্রামের ভূজপুর কালাইয়েরটেক আজিমপুর এলাকায়। তারা কর্মের খাতিরে ভাটিয়ার এলাকায় বসবাস করতো। সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ জানান, গতকাল আটককৃত নারী রেবেকা সুলতানা জ্যোতিকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর