× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

মুজিববর্ষের উদ্বোধনীতে প্রধান বক্তা থাকবেন মোদি

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ৯:০৮

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী ‘মুজিববর্ষ’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য রাখবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আগামী বছরের ১৭ই মার্চ ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হবে। এদিন মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মোদিসহ একাধিক ভারতীয় শীর্ষ নেতা ও কর্মকর্তারা। ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোয়াজ্জেম আলীকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য হিন্দু।

আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বছরজুড়ে নানা কর্মসূচির পরিকল্পনা করা হয়েছে। ২০১৯-২০২০ সালকে ঘোষণা করা হয়েছে মুজিববর্ষ। আগামী ১৭ই মার্চ থেকে মুজিববর্ষ শুরু হবে। মোয়াজ্জেম আলী জানান, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি নিমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন।
মোদির পাশাপাশি একাধিক ভারতীয় মুখ্যমন্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেতাদেরও নিমন্ত্রণ জানানো হবে। তিনি জানান, ভারতেও বিভিন্ন কর্মসূচি আয়োজনের পরিকল্পনা করা হয়েছে। বলেন,  দিল্লি, কলকাতা ও আগরতলা সহ বিভিন্ন জায়গায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। ভারতে আমাদের মিশনগুলো নানা অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করেছে।

এদিকে, ঢাকার কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দ্য হিন্দু জানায়, সব মিলিয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য অন্তত ৩০ বিশ্বনেতাকে নিমন্ত্রণ জানানো হবে। ইতিমধ্যে এক ডজনের বেশি নেতা তাদের অংশগ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে বিশ্বনেতাদের নিমন্ত্রণ জানানো হলেও তাদের মধ্যে থাকবে না পাকিস্তানের কেউই।
বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন কমিটির প্রেসিডেন্ট কামাল আবদুল নাসের জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ও ভারতের পাশাপাশি লন্ডন, টোকিও, নিউ ইয়র্ক ও মস্কো সহ বিশ্বের বিভিন্ন শহরে অনুষ্ঠান আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে। এসব অনুষ্ঠান পরিকল্পনা ও পরিচালনার জন্য গঠন করা হয়েছে আটটি উপ-কমিটি। আন্তর্জাতিক উপ-কমিটিগুলো বিদেশের কর্মসূচি সামলাচ্ছে।

তিনি বলেন, আগামী বছরের কলকাতা বইমেলার আয়োজনও হবে বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে। তাতে প্রকাশ পাবে দুই দেশের যৌথ প্রকাশনা, সংবাদ সম্মেলন, ডকুমেন্টারি ও সেমিনার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর