× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

আবারো সিটসিপাসে ভোগান্তি ফেদেরারের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৮:৫৯

এটিপি ট্যুর ফাইনালসের ট্রফির সংখ্যাটা ৭-এ নিয়ে যেতে পারলেন না রজার ফেদেরার। তারুণ্যের কাছে হার মানলেন আসরের রেকর্ড চ্যাম্পিয়ন। শনিবার জার্মানির ও-টু এরেনায় সেমিফাইনালে ২১ বছরের তরুণ স্তেফানোস সিটসিপাসের মুখোমুখি হন তিনি। গ্রিসের উঠতি তারকার সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ৩৮ বছর বয়সী ফেদেরার। সরাসরি ৩-৬, ৪-৬ গেমে পরাজিত হন। এ বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চতুর্থ রাউন্ডেও সিটসিপাসের কাছে হেরেছিলেন ফেদেরার। ক্যারিয়ারে প্রথমবার এটিপি ট্যুর ফাইনালসে অংশ নিয়েই সিটসিপাসের চমক। ২০০৯ সালে আর্জেন্টিনার হুয়ান মার্টিন দেল পোত্রোর পর সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে ট্যুর ফাইনালসের ফাইনালে ওঠলেন তিনি।
বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিলেন সিটসিপাস। ওটাই এখন পর্যন্ত তার সর্বোচ্চ অর্জন। শনিবার অপর সেমিফাইনালে অস্ট্রিয়ার ডিমিনিক টিয়েম সরাসরি ৭-৫, ৬-৩ সেটে হারান ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আলেকজান্দার জেভরেভকে। টিয়েম প্রথমবার এটিপি ট্যুর ফাইনালসের ফাইনালে ওঠেছেন। দুবার ফ্রেঞ্চ ওপেনে রানার্সআপ হওয়া তার ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ সাফল্য।
২০০২ সালের পর তৃতীয়বারের মতো এটিপি ট্যুর ফাইনালসের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে নেই তিন তারকা রজার ফেদেরার, নোভাক জোকোভিচ ও রাফায়েল নাদাল। ফেদেরারের কাছে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেন জোকোভিচ। আর দুই ম্যাচ জিতেও গেম ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় ছিটকে যান নাদাল। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে টেনিস বিশ্ব শাসন করছেন এই তিনজন। ২০০৪ সালের পর ফেদেরার-জোকোভিচ-নাদাল ছাড়া কেবল অ্যান্ডি মারে ২০১৬ সাল শেষ করেন র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকে। এই সময়ে ‘বিগ থ্রি’ ভাগাভাগি করেছেন ১২টি গ্র্যান্ড স্লাম। শীর্ষে থেকে ২০১৯ সাল শেষ করবেন ১৯ গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী নাদাল। তবে জেভরেভ-টিমের মতো তারকাদের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে আগামী বছর। টিম এই টুর্নামেন্টেই ফেদেরারকে হারান। আর ২০২০ সালে টেনিসে ‘বিগ থ্রি’র দাপট কমবে বলে মনে করেন ফেদেরার। ২০ গ্ল্যান্ড স্লাম জয়ী তারকা বলেন, ‘প্রতি বছরের শেষেই প্রশ্নটা করা হয় (তরুণদের সম্ভাবনা নিয়ে)। কিন্তু এরপর এক নম্বরে থেকে বছর শেষ করা খেলোয়াড়ের তালিকায় তাদের খুঁজে পাই না। ক্রেজি ব্যাপার হলো এক নম্বরে আমাদের মধ্যেই কেউ না কেউ থাকে। তবে আমরা তো দিন দিন যুবক হচ্ছি না। তাদের সুযোগ বাড়ছে। আমাদের অবনতি হচ্ছে এটার জন্য কিন্তু তাদের সুযোগ বাড়ছে না। কারণ ওরাই ভালো খেলছে।’
তরুণ জার্মান তারকা জেভরেভ বলেন, ‘আমার মনে হয় আসছে বছরে গ্র্যান্ড স্লাম নতুন চ্যাম্পিয়ন পাবে। কারণ তরুণরা অসাধারণ টেনিস খেলছে। আমাদের মধ্যেই কেউ একজন চ্যাম্পিয়ন হবে বলে আশা করছি।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর