× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সেতুর নিচে বস্তা বস্তা পঁচা পিয়াজ

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ২:০৬

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর পূর্ব বাজারে সেতুর নিচে ময়লার ভাগাড়ে বস্তা বস্তা পঁচা পিয়াজ দেখা গেছে। তবে কে বা কারা সেতুর নিচে পিয়াজ ফেলে যায় তা জানা যায়নি। সোমবার পথচারীরা যাওয়ার সময় সেতুর নিচে পিয়াজের বস্তা দেখে মনে কৌতূহল জাগে। কেউ কেউ ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেন। পরে ছবিগুলো মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়।

গৌরীপুর বাজারের ব্যবসায়ী জামাল হোসেন বলেন, পিয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় যেখানে নিম্ন আয়ের মানুষ রান্নার জন্য পিয়াজ কিনতে পারছে না, সেখানে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী পিয়াজ গুদামজাত করে পঁচিয়ে ফেলছে। পঁচিয়ে সেতুর নিচে ফেলে দেয়া মানে দেশের সম্পদের অপচয় করা, পাশাপাশি ভোক্তার অধিকার হরণ করা। তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে হবে।

এ বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ কুমিল্লার সহকারী পরিচালক আছাদুল ইসলাম বলেন, গুদামজাত করে পিয়াজ পঁচানোর অভিযোগ খতিয়ে দেখা হবে।
প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
md nurul amin
১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৪:৫৮

বাংলাদেশে ঘুটি কয়েক হাজার মানুষ পয়সা ওয়ালা। বাকী কোটি কোটি মানুষ হত দরিদ্র। অথচ কেমন হারামী ব্যবসায়ী হলে এই ধরনের কাজটি করতে পারে অর্থাৎ অধিক মোনাফার আসায় পেয়াজ গোদামজাত করে রেখেছে, যখন পেয়াজ পচা ধরেছে তখন ব্রিজের নিচে ফেলে দিচ্ছে কিন্তু বাজারে চারছে না আর গরিবদুখী মানুষগুলোর কথা একবারও চিন্তা করছে না। এধরনের ব্যবসায়ীদের খুজে বের করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দিলে আর এধরনের কাজ থেকে তারা বিরত থাকবে।

Kazi
১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১:১৩

মুনাফাখোররা কত বড় হারামি চিন্তা করুণ । পেঁয়াজ মজুত করে পচাবে তবুও বাজারে ছাড়বে না উচ্চমূল্য আদায় করার জন্য। মানুষকে নায্য দামে খেতে দিবে না। আল্লাহ এদের জন্যই জাহান্নাম তৈরি করে রেখেছেন।

অন্যান্য খবর