× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

‘তারা টাকা বানিয়ে ফেলেছে’

অনলাইন

তামান্না মোমিন খান | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ২:৫৬

জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অর্থনীতিবিদ আনু মুহাম্মদ বলেছেন, জনগনের দুর্ভোগ নিয়ে মস্করা করা সরকারেরর অভ্যাসে পরিণত  হয়েছে। সেটা পিয়াজের মূল্য বৃদ্ধি হোক বা সুন্দরবনের  ক্ষেত্রেই হোক বা মধ্যপ্রাচ্য থেকে নারী শ্রমিকদের লাশ আসার ক্ষেত্রেই হোক বা  ফেনী নদীর পানি কিংবা দুর্নীতি সবকিছু নিয়েই তারা হাস্যরস করে। ক্ষমতার কেন্দ্রিকরণ হলে যা হয় আরকি সেটাই হচ্ছে । জনগনের প্রতি নূন্যতম সংবেদনশীলতা না থাকলে এটা ঘটে। তিনি বলেন, মধ্যবিত্ত বা নিম্নবিত্ত মানুষদের জন্য পিয়াজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। এমন অনেক মানুষ আছে যাদের ভাতের সঙ্গে খাওয়ার আর কিছু থাকে না। তাদের শুধু পিয়াজ মরিচ দিয়েই ভাত থেতে হয়। তাদের জন্য পিয়াজটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।
পিয়াজ কেনা নিয়ে ভাবতে হয় যারা  মধ্যবিত্ত যারা নিম্নবিত্ত তাদের। যারা পিয়াজের মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী তারা সরকারের কাছের লোকজন এজন্য এ সমস্যা সমাধানের তাদের কোন আগ্রহ নেই। ইতিমধ্যে যারা টাকা বানানোর তারা টাকা বানিয়ে ফেলেছে। সরকার জানে কারা এ সমস্ত করছে। কী ধরনের দুর্নীতির কারণে এসব হচ্ছে এটাও তাদের জানা। এবং তারা সেটার পৃষ্ঠপোষক একারণে তারা এটার সমাধান করেনা। যারা পিয়াজ সিন্ডিকেট করে টাকা বানাচ্ছে তারা যেহেতু ক্ষমতাবানদের ঘনিষ্ঠ সেহেতু তাদের রক্ষা করেই অভিযান চলে। পিয়াজ নিয়ে মানুষের অসন্তোষ সৃষ্টি হচ্ছে। অর্থনৈতিক রাজনৈতিক অসন্তোষগুলোতো আলাদা কিছু নয়। মানুষের মধ্যে বহু ধরনের অসন্তোষ জমা আছে। কারো ওপর ভরসা করতে পারছেনা বলে মানুষ অসন্তোষ নিয়ে ধুঁকে ধুঁকে মরছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ahammad
১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ২:৫২

জনাব,স্যার আপনার সাথে ১০০% সহমত পোষন করলাম। এটা আমাদের জাতীর জন্য জাতীয় দূর্ভাগ্য, কারন জাতী সঠিক সময় সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে না পারার কানেই আজকের এই বেসামাল অবস্হা।

অন্যান্য খবর