× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

বিএনপি নেতা মীর নাসির ও ছেলে মীর হেলালের দণ্ড হাইকোর্টে বহাল

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:০৮

দুর্নীতির মামলায় বিএনপি নেতা মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিনকে ১৩ বছর ও তার ছেলে ব্যারিস্টার মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিনকে ৩ বছর বিচারিক আদালতের দেয়া দণ্ড বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপতি এ কে এম আব্দুল হাকিম ও বিচারপতি ফাতেমা নজীবের হাইকোর্ট বেঞ্চ আপিল বিভাগের আদেশে এই মামলায় পুনরায় শুনানি শেষে এ রায় দেন। একইসঙ্গে, হাইকোর্ট রায়ের কপি পাওয়ার তিন মাসের মধ্যে তাদেরকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ দিন আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন মো.আসাদুজ্জামান। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। পওে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, হাইাকোর্ট বিচারিক আদালতের সাজা বহাল রেখছেন।

ইথি থেকে জানা যায়, ২০০৭ সালের ৬ই মার্চ অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে মীর নাসির ও তার ছেলে মীর হেলালের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় দুদক মামলা করেন। এ মামলায় বিশেষ জজ আদালত একই বছরের ৪ঠা জুলাই এক রায়ে মীর নাসির উদ্দিনকে ১৩ বছর এবং মীর হেলালকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন।
এ রায়ের বিরুদ্ধে মীর নাসির ও তার ছেলে মীর হেলাল হাইকোর্টে পৃথক দুটি আপিল করেন। হাইকোর্ট ২০১০ সালের ১০ই আগস্ট মীর নাসিরের এবং একই বছরের ২ আগস্ট মীর হেলালের সাজা বাতিল করে রায় দেন। হাইকোর্টের ওই রায় বাতিল চেয়ে দুদক আপিল আবেদন করেন। ২০১৪ সালের ৪ঠা জুলাই দুদকের আবেদন মঞ্জুর করে রায় দেন আপিল বিভাগ। রায়ে মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন ও তার ছেলে ব্যারিস্টার মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিনকে দুর্নীতির মামলায় খালাস দিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বাতিল করেন। একইসঙ্গে মামলাটির আপিল আবেদন পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেওয়া হয়। সে অনুসারে হাইকোর্টে ওই আপিল দুটির পুনরায় শুনানি হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর