× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

চট্টগ্রামে টিসিবি’র পিয়াজ নিয়ে কাড়াকাড়ি

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৭:৩৬

ক্রয়মূল্য সহনীয় রাখতে চট্টগ্রাম মহানগরেও প্রথবারের মতো খোলাবাজারে পিয়াজ বিক্রি করেছে সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।  নগরীর কোতোয়ালি, দামপাড়া, বন্দর থানা, হালিশহর থানা, পাহাড়তলী থানা ও বায়েজিদ বোস্তামী থানার সামনে মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে এ কার্যক্রম চালায় টিসিবি। এ সময় ক্রেতারা প্রত্যেকে ৪৫ টাকা দরে এক কেজি করে পিয়াজ কেনার সুযোগ পায়। তবে এক কেজি পিয়াজ কিনতেও কাড়াকাড়ি করতে দেখা যায় ক্রেতাদের। ক্রেতাদের দাবি, প্রতিজনকে আরও বেশি পিয়াজ ক্রয়ের সুযোগের পাশাপাশি বিক্রির স্থান বাড়ানো দরকার। অন্যথায় অনেকেই পিয়াজ কিনতে না পেরে এখানে এসে শুধু ভোগান্তিতে পড়বেন। টিসিবির চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-উর্ধ্বতন কার্যনির্বাহী (অফিস প্রধান) জামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, পেয়াজের মূল্য অসহনীয় মাত্রায় বাড়ার পর ঢাকায় টিসিবির পিয়াজ বিক্রির কার্যক্রম চালানো হলেও চট্টগ্রাম মহানগরীর কোতোয়ালি, দামপাড়া, বন্দর থানা, হালিশহর থানা, পাহাড়তলী থানা ও বায়েজিদ বোস্তামী থানার আশপাশে প্রথমবারের মতো ট্রাকে করে পিয়াজ বিক্রি করা হয়েছে। প্রতিটি ট্রাকে এক টন করে ছয় টন পিয়াজ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক ক্রেতা এক কেজি করে পিয়াজ কিনতে পেরেছেন।
প্রতি কেজি পিয়াজের দাম ৪৫ টাকা। নগরের কোতোয়ালী এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পিয়াজ কিনতে আসা ক্রেতাদের ভিড়। এ সময় পিয়াজ ক্রেতা আনিসুর রহমান জানান, আনোয়ারা থেকে শহরে কাজে এসেছিলেন তিনি। পথে ট্রাকে পিয়াজ বিক্রি করতে দেখে এক কেজি পিয়াজ কিনেছেন তিনি। বাজারমূল্যের চেয়ে ১০০ টাকা কমে পিয়াজ কিনতে পেরেছেন বলে তিনি জানান। ক্রেতারা জানান, দীর্ঘদিন থেকে পিয়াজের বাজারে মূল্য বাড়ার উত্তাপ চলছে। তাই তারা বিভিন্ন সময় টিসিবির পিয়াজ বিক্রির দাবি করে আসছিলেন। অবশেষে সেটি চালু হওয়ায় অনেকটা স্বস্তি পাচ্ছেন তারা। তবে মাত্র ১ কেজি করে বিক্রি করায় অনেককে ক্ষোভ প্রকাশ করতেও দেখা গেছে। উল্লেখ্য, সাগরপথে চট্টগ্রাম বন্দরে পিয়াজ আসার পর দাম কমলেও মিয়ানমারের পিয়াজ এখনো প্রতি কেজি ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মিশর, তুরস্ক ও চীনের পিয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ১৩০ টাকায়। সে হিসেবে ৪৫ টাকা কেজিপ্রতি পিয়াজ কিনতে কাড়াকাড়ি শুরু করেন ক্রেতারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর