× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ট্র্যাজেডি

চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদনেও দায়ী তূর্ণার চালক-গার্ড

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৮:০২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় মন্দবাগ রেলস্টেশনে ট্রেন দুর্ঘটনায় ১৬ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় বিভাগীয় প্রধান পর্যায়ে গঠিত তদন্ত কমিটির চূড়ান্ত প্রতিবেদনেও তূর্ণা নিশীথার চালক তাছের উদ্দিন, সহকারী চালক অপু দে ও পরিচালক (গার্ড) আব্দুর রহমানের দায়িত্বে অবহেলাকে দায়ী করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে রেলওয়ে মহাপরিচালকের কাছে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন পাঠান কমিটির প্রধান রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের চিফ অপারেটিং সুপারিটেন্ডেন্ট (সিওপিএস) নাজমুল ইসলাম। এর আগে কমিটির প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনে ওই ট্রেন দুর্ঘটনার জন্য তুর্ণা নিশীথার চালক ও গার্ডকে দায়ী করা হয়। নাজমুল ইসলাম বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছি। দুর্ঘটনার বিষয়ে তদন্তে যেসব কারণ উঠে এসেছে সেগুলোর বিস্তারিত বিবরণ আছে। মহাপরিচালক স্যার সেটা গ্রহণ করতেও পারেন, আবার না-ও করতে পারেন। যদি গ্রহণ করেন, সেক্ষেত্রে প্রতিবেদনে কী কী বিষয় উঠে এসেছে, সেটা উনিই বলবেন। প্রতিবেদন গ্রহণের আগে বিষয়টি প্রকাশ করা সমীচীন নয়।
তবে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার সময় কমিটির এক সদস্য নাম প্রকাশ না করে বলেন, তূর্ণা নিশীথার চালক ও গার্ড অটো ব্রেকে ইট চাপা দিয়ে ঘুমিয়েছিলেন। ফলে তারা সিগন্যাল দেখতে পাননি। এ কারণে ট্রেন দুর্ঘটনা হয়েছে। রেলের অন্যপথ নির্মাণকাজে ধুলা বা উপকরণ রাখার কারণে সিগন্যাল না দেখার যে দাবি চালক ও গার্ডদের তার কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।  

দুর্ঘটনার পর বিভাগীয় প্রধান পর্যায়ে চার সদস্যের এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন-চিফ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার, চিফ সিগন্যাল অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ার ও চিফ ইঞ্জিনিয়ার।
দুর্ঘটনার পর কারণ তদন্তে বাংলাদেশ রেলওয়ের তিনটি এবং রেলপথ মন্ত্রণালয়ের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এর মধ্যে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (চট্টগ্রাম) নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত কমিটি গত ১৫ই নভেম্বর প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর