× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

‘আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশকে দায়ি করছে মিয়ানমার’

অনলাইন

তামান্না মোমিন খান | ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ২:০০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্ন্তজাতিক সর্ম্পক বিভাগের অধ্যাপক ড. আমেনা মহসীন বলেছেন, নিজেদের আত্মরক্ষার্থেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশকে দায়ী করছে মিয়ানমার। তাদের অবস্থান থেকে তারা এ ধরনের কথা বলছে। কিন্তু বিশ্ববাসীর কাছে তা প্রমাণ করতে পারছে না।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের আর্ন্তজাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) মিয়ানমারে বিরদ্ধে মামলা হতো না, যদি তারা সঠিকভাবে প্রত্যাবাসনের পদক্ষেপ নিতো। আর্ন্তজাতিক যে সম্প্রদায় আছে তারাই তো পর্যবেক্ষণ করছে। তারাই তো দেখছে যে, মিয়ানমার এমন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি যার কারণে রোহিঙ্গারা ফেরত যেতে পারবে। একই কারণে রোহিঙ্গারা নিজেরাও যেতে রাজি না। এটা সবার সামনে দৃশ্যমান।
সুতরাং রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশকে দায়ী করে মিয়ানমার পার পাবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আমেনা মহসীন বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের কূটনৈতিক তৎপরতা আরও জোরদার করতে হবে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ জোরালো কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করেছে। বিশ্বনেতাদের সঙ্গে নিয়ে  মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে হবে বলে মনে করেন তিনি। আর্ন্তজাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) তাদের রাযকে মেনে নিতে মিয়ানমারকে বাধ্য করতে পারবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, আইসিসির সেই র্ফোসিং পাওয়ার নেই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর