× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৫ এপ্রিল ২০২০, রবিবার

এক চিমটি হলুদেই দূর হবে এত সমস্যা!

শরীর ও মন

অনলাইন ডেস্ক | ৪ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১:১৩

বর-কনের গায়ে হলুদ দেয়ার রেওয়াজ  নতুন কিছু নয়। ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে  নানা অনুষ্ঠানে শরীরে হলুদ মাখার রীতিতো আছেই। কিন্তু কখনো কি আমরা ভেবে দেখেছি এই হলুদের কী কী  উপকারিতা আছে?
অনেকের মতে, হলুদ ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়িয়ে তোলে, তাই বিয়েতে বর-কনের সাজগোজ যাতে আরও নজরকাড়া হয়, তা বজায় রাখতেই হলুদের আশ্রয় নেয়া। তবে শুধু বিয়ে বা বর কনের জন্যই হলুদ নয়। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানেও হলুদের ভূমিকা অনেক। অনেক রুপ বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, ‘‘হলুদ একে অ্যানটিসেপ্টিক, তার উপর তেলতেলে ত্বকের যত্নে এর প্রভাব বেশ অনেকটাই।
ভেষজ গুণ থাকায় নানা ফেসপ্যাকেই হলুদ মেশানো যায়। অনেক রোগের ঘরোয়া সমাধানেও তাই কাজে লাগে হলুদ।’’ এখন শীতকাল।
এর ব্যবহার তাই লক্ষণীয়। ত্বকের শুষ্কতা দূর করা, ফাটা ঠোঁটের পরিচর্যা, ত্বকের দাগছোপ দূর এমন অনেক কিছুতেই হলুদের ভূমিকা  রয়েছে। যেমন, ১ চামচ চন্দনের গুঁড়ো, ২ চামচ লেবুর রস, এক চামচ বেসন ও এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে ব্যবহার করলে ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করা যায় সহজেই। মুসুর ডাল বাটার সঙ্গে এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে ব্যবহার করলে ত্বকের হারানো ঔজ্জ্বল্য ফিরে আসে। সপ্তাহে তিন দিন এই প্যাক মাখলে সহজেই ত্বক থেকে বাড়তি তেল মুছে ব্রণর সমস্যা কমে অনেকখানি। শীতে ফাটা ঠোঁটের হাত থেকে বাঁচতে চিনি, হলুদ ও মধুর মিশ্রণ ঠোঁটে মেখে পাঁচ মিনিট রাখা যেতে পারে।  নিয়মিত এই মিশ্রণ ব্যবহার করলে ফাটা ঠোঁটের সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে ।  

(তথসুত্র- আনন্দবাজার )

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর