× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার

ভূমিধস জয়ের পথে কনজারভেটিভ পার্টি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১২:২৬

ভূমিধস জয় পাচ্ছে বৃটেনের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টি। অন্যদিকে ভয়াবহ পরাজয় হচ্ছে বিরোধী লেবার দল। ফলে উল্লাসে ফেটে পড়ছে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নেতৃত্বাধীন কনজারভেটিভ পার্টির নেতাকর্মীরা। অন্যদিকে পরাজয় স্বীকার করে দলের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন লেবার দলনেতা জেরেমি করবিন। বৃটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমন্সের ৬৫০ আসনে ভোট গ্রহণ হয় বৃহস্পতিবার। এতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে একটি দলকে পেতে হয় ৩২৬ আসন। কিন্তু কনজারভেটিভ পার্টি এককভাবে এর চেয়ে অনেক বেশি আসন পেতে যাচ্ছে। আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা না হলেও বিবিসির পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, ৭৪ আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ডাউনিং স্ট্রিটে ফিরছেন বরিস জনসন।
তিনি এরই মধ্যে বলে দিয়েছেন, এই বিজয় তাকে ব্রেক্সিট সম্পাদনের ম্যান্ডেট দিয়েছে। ফলে আগামী মাসে তিনি বৃটেনকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের করে আনতে পারবেন। বরিস জনসন নির্বাচিত হয়েছেন পশ্চিম লন্ডনের উক্সব্রিজ আসন থেকে। অন্যদিকে লেবার নেতা জেরেমি করবিন বিজয়ী হয়েছেন ইলিংটন নর্থ আসন থেকে। বৃহস্পতিবার রাতকে তিনি খুব বেশি হতাশার রাত বলে আখ্যায়িত করেছেন। বলেছেন, তিনি ভবিষ্যতে আর কোনো নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। উল্লেখ্য, নর্থ, মিডল্যান্ডস এবং ওয়েলসজুড়ে আসন হারিয়েছে লেবার দল।
লিবারের ডেমোক্রেট নেতা হিসেবে জো সোয়াইনসন নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছিলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে চান বলে আশা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু তিনি ডানবার্টনশায়ার ইস্ট আসনে এসএনপি প্রার্থীর কাছে ১৪৯ ভোটে পরাজিত হয়েছেন। অন্যদিকে ওয়েস্টমিনস্টারে ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিস্ট পার্টির প্রার্থী নাইজেল ডোডস বেলফাস্ট নর্থ আসনে পরাজিত হয়েছেন সিন ফেইনের কাছে। কনজার্ভেটিভ দলের মন্ত্রী জ্যাক গোল্ডস্মিথকে পরাজিত করে রিচমন্ড পার্কে বিজয়ী হয়েছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী। লেবারে দলের ক্যারোলাইন ফ্লিন্ট পরাজিত হয়েছেন ডন ভ্যালি আসনে কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থীর কাছে।
এখন পর্যন্ত কনজারভেটিভ দলের জন্য যে ফল আসছে তা তাদের ধারণারও অতীত। তারা সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে বিজয়ী হয়েছে। ফলে বরিস জনসন নতুন সরকার গঠন করতে পারবেন। এর ফলে আগামী মাসে তিনি সাবলীলভাবে ব্রেক্সিট সম্পন্ন করতে পারবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর