× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার

নন্দীগ্রামে যুবকের মরদেহ উদ্ধার পীরের ৬ মুরিদ আটক

বাংলারজমিন

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৮:৪২

 বগুড়ার নন্দীগ্রামে মাঠ থেকে আব্দুর রহিম ওরফে বল্টু নামের (৪০) এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রাম পুলিশসহ ৬ জন পীরের মুরিদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। শনিবার দুপুর একটার দিকে নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের চণ্ডিপুর গ্রামের মাঠ থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত রহিম একই উপজেলার সিংজানি গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে। জানা  গেছে, আব্দুর রহিম তিনদিন ধরে একই উপজেলার পদ্মপুকুর গ্রামের গ্রাম পুলিশ সিদ্দিকুর রহমানের বাড়িতে গিয়াস উদ্দিন  গেদা পাগলার মাজারে ছিল। সেখানে মাঝে মধ্যেই গান বাজনার আসর বসতো। শুক্রবার রাতেও সেখানে আসর বসে। ওই আসরে পীর মুরিদদের পাঁচজনের ছেলেমেয়ের বিয়ে দেয়া হয়।
সেই আসরে রহিম উপস্থিত ছিল। শনিবার মরদেহ উদ্ধারের পর পার্শ্বে একটি সাদা রং-এর জ্যাকেট ও একটি মোবাইলফোন পাওয়া গেছে। মোবাইলফোনের সূত্র ধরে পুলিশ নিহতের পরিচয় উদঘাটন করে। মরদেহ উদ্ধারের পর পুলিশ গ্রাম পুলিশ সিদ্দিকুরের বাড়িতে গিয়ে দেখতে পায় তার পরিবারের সবাই আত্মগোপন করেছে। ওই বাড়িতে পালিয়ে যাওয়ার সময় পীরের মুরিদ তিনজন নারী ও দুইজন পুরুষসহ গ্রাম পুলিশ সিদ্দিকুরকে আটক করে। নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শওকত কবির বলেন, প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের জন্য  ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর