× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার
স র জ মি ন ঢাকা দক্ষিণ ২৬ নং ওয়ার্ড

প্রার্থীদের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, আগ্রহ নেই ভোটারদের

এক্সক্লুসিভ

মোহাম্মদ ওমর ফারুক | ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৭:৩৯

পুরান ঢাকার লালবাগ ও চকবাজার থানার কিছু অংশ নিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড। এখানে  ২ লাখ ৫০ হাজার  লোকের বসবাস। ভোটার সংখ্যা ৩৫ হাজার। এ ওয়ার্ডে নানা সমস্যা থাকলেও ভোট নিয়ে আগ্রহই নেই ভোটারদের। ওয়ার্ড ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তার দুইপাশে অবৈধ দোকান এবং যত্রতত্র পার্কিংয়ের কারণে এ ওয়ার্ডের মূল সড়ক আজিমপুর রোড ও আজিমপুর কবরস্থান  রোডে সারা দিনই যানজট লেগে থাকে। এছাড়া পুরো এলাকায় অবাধে চলছে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। আজিমপুর রোডের সলিমুল্লাহ এতিমখানার সামনে থেকে নিউমার্কেট-নীলক্ষেত চৌরাস্তা পর্যন্ত সড়কের পশ্চিম পাশের অর্ধেক দখল করে অর্ধশতাধিক যাত্রীবাহী বাস। এতে সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।
তবে আসন্ন নির্বাচনে  প্রার্থীরা এ ওয়ার্ডে ড্রেনেজ ও পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থার আধুনিকায়ন, পানি ও মশক সমস্যা সমাধান, কমিউনিটি  সেন্টার , খেলার মাঠ ও যানজটমুক্ত এলাকা হিসেবে গড়ে  তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রচারণা চালালেও ভোট নিয়ে কোনো ধরনের আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না ভোটারদের মধ্যে।

আজিমপুরের বাসিন্দা লিটন দেওয়ান বলেন ,কাকে ভোট দিবো? ভোট নিয়ে যে পরিমান কথাবার্তা শুনা যায়। সুষ্ঠু ভোট হবে কি না এ নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে কেনো ভোট কেন্দ্রে যাবো? নাম প্রকাশে অন্‌িছুক আরেক বাসিন্দা বলেন, এখন তো আর ভোট হয় না। কেন্দ্রে গিয়ে কি করবো। দেশে তো অনেক নির্বাচন হলো, কয়টা নির্বাচনে ভোটার’রা গিয়েছে? ওয়ার্ডের প্রায় অর্ধশতাধিক বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের সঙ্গে কথা বলে  দেখা গেছে, কারোই কোনো আগ্রহ নেই আসন্ন সিটি নির্বাচনে । তারা বলছেন, যারাই জনপ্রতিনিধি হন তারা নির্বাচিত হওয়ার পর আর জনগনের কথা মনে রাখেন না। তাছাড়া বর্তমান নির্বাচন মানেই শুভঙ্করের ফাকি। তাহলে  ভোট দিয়ে লাভ টা কি? এদিকে ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক রেডিও মার্কা নিয়ে এবারও আওয়ামী লীগের সমর্থন পেয়েছেন। বিএনপির  প্রার্থী এই ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মীর আশরাফ আলী আজম মিষ্টি কুমড়া মার্কা নিয়ে মাঠে আছেন। তবে এই ওয়ার্ডে বড় দুই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ঝুড়ি মার্কা নিয়ে মাঠে রয়েছেন বিএনপির লালবাগ থানা সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম সুইট ও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো.হাসিব উদ্দিন রসি। ঘুড়ি মার্কা নিয়ে তিনি নির্বাচন করছেন। এছাড়াও জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করছেন, মো.দীন ইসলাম ঠেলাগাড়ি মার্কা, মনজুরুল ইসলাম মন্‌জু লাঠিম মার্কা। তবে বড় দুই দলের প্রার্থীর মধ্যে রয়েছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ। অভিযোগ রয়েছে ,বিএনপির প্রার্থীদের নানাভাবে হুমকি  দিয়ে আসছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী। বিএনপির সমর্থিত প্রার্থী মীর আশরাফ আলী আজম বলেন , আমাকে প্রচার প্রচারণা করতে প্রশাসন থেকেও নানাভাবে বাঁধা দেয়া হচ্ছে। তাছাড়া আওয়ামীলীগের প্রার্থী হাসিবু রহমান মানিক নিজে এবং তার দলের কর্মীদের দিয়ে আমাকে ফোনে এবং সরাসরি হুমকি ধমকি দিয়ে আসছেন। এই নিয়ে আমি  রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ করলেও কোনো  প্রতিকার পাইনি।

একই অভিযোগ করেছেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো.হাসিব উদ্দিন রসি। তিনি বলেন , রাতের বেলায় আমার পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে। দলের বাইরে গিয়ে নির্বাচন কেন করছেন এ প্রশ্নের রসি বলেন , আমার বাবা মা এই এলাকার একসময়  কাউন্সিলর ছিলেন । আমি জানি এলাকার সমস্যা কি। সেই জায়গা থেকে আমি নির্বাচন করছি। ওদিকে সকল অভিযোগ অস্বিকার করেছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী হাসিবুর রহমান মানিক। উল্টো তিনি অভিযোগ করেছের বাকি প্রার্থীদের নিয়ে। বলেন ,আমিও একটি অভিযোগ রেডি করেছি কাল পরশু রিটার্নিং কর্মকতার কাছে দিবো। বিএনপির প্রার্থীরা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয় অথচ শুক্রবারও তারা নিজেরা নিজেরা লেগে থাকতে দেখেছি।

 ২৬ নম্বর ওয়ার্ড ঢাকা দক্ষিণে নানান ভাবে গুরুত্ব বহন করে।  এই এলকায় আজিমপুর কবরস্থান, ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের আজিমপুর শাখা, আজিমপুর মাতৃসদন হাসপাতাল, ইডেন কলেজ, হোম ইকোনমিক্স কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মুসলিম এতিমখানা, আজিমপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, অগ্রণী স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ওয়েস্ট অ্যান্ড হাইস্কুল, আজিমপুর স্টাফ কোয়ার্টারের মতো অনেক গুরুত্বপূর্ন স্থাপনা রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর