× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার

তিন মাসের মধ্যে যানজট মুক্ত করার প্রতিশ্রুতি

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ৯:১১

মেয়র পদে ফের নির্বাচিত হলে তিন মাসের মধ্যে ঢাকার পরিবহন সমস্যা ও যানজট মুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম।  গতকাল ১৪ নম্বর কচুক্ষেত, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া এলাকা থেকে নবম দিনের নির্বাচনী গণসংযোগের শুরুতে তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন। এ সময় তার সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচিত মেয়র আনিসুল হক নগরবাসীর সমস্যা সমাধানের ‘নগর’ নামের একটি মুঠোফোনভিত্তিক অ্যাপ চালু করেছিলেন। এই অ্যাপের মাধ্যমে যেকোনো নাগরিক অসুবিধার অভিযোগ জানালে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেয়ার কথা ঘোষণা দিয়েছিলেন আনিসুল হক। এটি চলু করার কয়েক মাস পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে নগর অ্যাপসটিও কার্যত অচল হয়ে যায়। এবার ঢাকাবাসীর অভিযোগ জানানোর জায়গা হিসেবে ‘সবার ঢাকা’ নামের নতুন একটি অ্যাপ চালু করার কথা বললেন আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ৩০শে জানুয়ারি নির্বাচিত হলে ‘স্মার্ট ঢাকা সিটি’ গড়ে তোলা হবে। এর অংশ হিসেবে ‘সবার ঢাকা’ অ্যাপ চালু করা হবে। এর মাধ্যমে নগরবাসী এলাকার সব সমস্যার সমাধান পাবেন।
তাঁরা তাদের সমস্যার কথা সরাসরি জানালে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব নেয়ার তিন মাসের মধ্যে এই অ্যাপ চালু করার কথা বলেন আতিকুল। এ ছাড়া কচুক্ষেত এলাকার বাসযাত্রীদের জন্য যাত্রীছাউনি স্থাপনের কথা জানান। নির্বাচিত হওয়ার ৯০ দিন, অর্থাৎ তিন মাসের মধ্যে এখানে যাত্রীছাউনি করার কথা বলেন তিনি। এ ছাড়া ইব্রাহিমপুরে থেকে বাঙলা কলেজ পর্যন্ত ১০০ ফিট রাস্তার কাজ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। আতিকুল ইসলাম বলেন, নৌকার কোনো ব্যাক গিয়ার নেই, এটি শুধু সামনের দিকে চলে। আমাদের উন্নয়নের যে ধারা শুরু হয়েছে তা শুধু চলতে থাকবে। উত্তর সিটি করপোরেশনের মানুষ আমাকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করলে পরবর্তী তিন মাসের মধ্যে ‘আমার ঢাকা’ নামে একটি অ্যাপস তৈরি করা হবে। সকল পরিবহনগুলোকে এর আওতায় আনা হবে। তিনি বলেন, ৯ মাস দায়িত্ব পালনকালে আমরা নানা সমস্যা চিহ্নিত করেছি, সেসব সমস্যা সমাধানে পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয়েছে।

উত্তর সিটি করপোরেশনের সকল যানজটপূর্ণ এলাকায় ইউলুপ তৈরি করা হবে। গণপরিবহনগুলোকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে আমার ঢাকা অ্যাপ তৈরি করে তার মাধ্যমে বাসের টিকিট বিক্রি চালু করা হবে। পরিবহনের একাধিক মালিকানা বাতিল করে কয়েকটি কোম্পানি করা হবে। সেখানে পরিবহন ব্যবসায়ীদের জন্য শেয়ার বিক্রি করা হবে। আওয়ামী লীগ মনোনীত এ মেয়রপ্রার্থী আরও বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হলে ঢাকার দীর্ঘ দিনের সমস্যা দূর করা হবে। তার মধ্যে- ফুটপাত, এলইডি লাইট, ড্রেনেজ, রাস্তাসহ আধুনিক পরিকল্পিত বাসযোগ্য ঢাকা গড়ার কাজ আগামী ৬ মাসের মধ্যে শুরু করবো ইনশাআল্লাহ। গতকাল শনিবার মিরপুর-১৪ নম্বরের কচুক্ষেত স্বাধীনতা চত্বরে সমবেত হয়ে গণসংযোগ শুরু করেন। এরপর ১৪ নম্বর কচুক্ষেত, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়াসহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় গণসংযোগের মাধ্যমে নৌকার পক্ষে ভোট চান আতিকুল ইসলাম।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
kamrul islam sagar
১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ৩:২৭

please give us only six company bus project in 12 month ,nothing else

আজিজ
১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ১১:৫৯

২০২০ সালের এ পর্যন্ত সেরা জোকস্। আচ্ছা আমাকে বুঝানতো, কিভাবে ঢাকার যানজোট মুক্ত করবেন? আপনি চাঁদের দেশে থেকে কথা বলেন নাকি? নাকি আমাদের নেশাখোর মনে করেন? বর্তমানে ঢাকার জ্যাম দূর করতে হলে অথবা এটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হলে ঢাকা থেকে অর্ধেকের বেশি জন সংখ্যা কমাতে হবে। জন সংখ্যা কমলে যানজোট এমনেতেই কমবে। এখন কথা হচ্ছে সব কিছু যখন ঢাকা কেন্দ্রিক সেখানে এ সমস্যা বহাল তবিয়তেই থাকবে । এখানে ম্যাজিক দিয়ে কাজ হলেও লজিক বলে হবে না। তাই আপনারা ফালতু কথা না বলে একটু সহজ করে কথা বলুন। ডিজিটাল যুগে আমরা মূর্খ্য নই।

জামশেদ পাটোয়ারী
১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ১২:০৫

গত পাঁচ বছরে করেননি কেন? ভোটের মুলা আর ঝুলাবেন না।

habib
১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ১১:০৬

তিন মাস নয়, তিন বছর নয়, ত্রিশ বছরেও পারবেন না। অযথা ফালতু কথা বলার কোন মানে নেই।

অন্যান্য খবর