× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার

এবার কাসেম সোলাইমানির সহযোগীকে হত্যা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৩ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:৪৪

ইরানের কুদস ফোর্সের প্রয়াত প্রধান কাসেম সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ, স্থানীয় একজন কমান্ডার আবদুল হোসেন মোজাদ্দামিকে হত্যা করা হয়েছে। সোলাইমানিকে যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন ব্যবহার করে হত্যা করে এবং এর দায় স্বীকার করে। কিন্তু মোজাদ্দামি হত্যার দায় কেউ স্বীকার করে নি। এ খবর দিয়ে অনলাইন আল জাজিরা বলছে, বুধবার মুখোশপরা কিছু অস্ত্রধারী তাকে ঘিরে ফেলে এবং গুলি চালিয়ে হত্যা করে। মোজাদ্দামী ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আধা সামরিক বাহিনীর একজন কমান্ডার। ডার্কহোয়েন শহরে ইরানের ইসলামিক রেভ্যুলুশনারি গার্ড কোরের অঙ্গ সংগঠন আধা সামরিক বাহিনী বাসিজ ফোর্সের প্রধান ছিলেন তিনি। ইরানের তেল সমৃদ্ধ খুজেস্তান প্রদেশে নিজের বাড়ির সামনে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সরকারি বার্তা সংস্থা ইরনা বলেছে, রাইফেল হাতে দু’ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলে করে এসে তাকে ঘিরে ফেলে।

ইরানের অন্য মিডিয়াগুলো বলছে, এ সময় হামলাকারীদের মুখ ছিল মুখোশে ঢাকা।
চারটি গুলির শব্দ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। তদন্ত চলছে। কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তাও জানা যায় নি। তবে নভেম্বরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ভয়াবহ সংঘর্ষে বাসিজ বাহিনী জড়িত ছিল। ওই বিক্ষোভে অনেক বিক্ষোভকারী আহত ও নিহত হয়েছেন। মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল রিপোর্টে বলেছে, ওই বিক্ষোভে পুরো ইরানে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০০ মানুষ। মোজাদ্দামি হত্যাকে দেখা হচ্ছে ইসলামিক রেভ্যুশনারি গার্ড কোরের বিরুদ্ধে আরো একটি বড় আঘাত হিসেবে। এ মাসেই ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রোন ব্যবহার করে হত্যা করা হয় কুদস ফোর্সের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা কাসেম সোলাইমানিকে। তার অতি ঘনিষ্ঠ ছিলেন মোজাদ্দামি। এমন কথা বলেছে রেভ্যুলুশনারি গার্ড।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর