× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার

মিরপুর ২- এ একটি বাড়ি ঘিরে আতঙ্ক

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২২ মার্চ ২০২০, রবিবার, ৪:৩৫

মিরপুর ২ এলাকার, ৬০ ফিট আহমদ নগর ব্যাংক কলোনীর একটি বাড়ি ঘিরে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। দুপুর ১ টার দিকে পুলিশ সদস্য এসে বাড়িটিতে থাকা এক প্রবাসীর খোঁজ করেন। তবে কেউ তার সন্ধান দেননি। এমনকি পুলিশের ডাকে সাড়া অব্দি দেননি। ফিরে যাওয়ার সময় পুলিশ সদস্য আশেপাশের বাসিন্দাদের বলে যান, আপনারা সাবধানে থাকবেন। কেউ তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন না।

সরজমিন বাড়িটিতে গিয়ে  জানা যায়, ঐ প্রবাসী ব্যাক্তির নাম মনির।  তিনি ৪ দিন আগে ওমান থেকে আসেন। মাইক্রো করে, গভীর রাতে বাসায় ঢোকেন।
বাজারেও যাতায়াত করতেন নিয়মিত।  বাড়িটিতে গিয়ে ডাকাডাকির পরেও কেউ বের হননি। আশেপাশের দোকানে পুলিশ বলে গিয়েছেন কোন ধরণের দ্রব্য যাতে তাদের কাছে বিক্রি করা না হয়। এলাকা জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
রিপন
২২ মার্চ ২০২০, রবিবার, ১০:৪৬

দোকানি কি পেটের দায়ে না বেচে পারবে? তারচে' পুলিশের উচিৎ ছিল: ১. মিস্ত্র্রি, ম্যাজিসট্রেট নিয়ে যাওয়া। ২. দরজা না খুললে প্রথমে ম্যাজিসেট্রেটের অনুমোদনক্রমে হ্যানড মাইকে ঘোষণা দেয়া - দরজা না খুললে লক ডাউন করে দেয়া হবে। ৩. তারপরও না খুললে দরজা বাইরে থেকে মিস্ত্রি দিয়ে লোহা বা কাঠের বার দিয়ে লক করে দেয়া। ৪. দরজার তলদেশের ফাঁক দিয়ে এরপর কাগজের স্লিপে পুলিশের ফোন নাম্বার লিখে স্লিপটি ঘরের ভেতর ঢুকিয়ে দেয়া। ৫. এরপর হ্যানড মাইকে বলে দেয়া - আমরা লক ডাউন করে চলে গেলাম ম্যাজিসট্রেটের অনুমতি নিয়ে। পরে, প্রয়োজন দেখা দিলে স্লিপে লেখা নাম্বারে ফোন করবে। পুলিশ তোমাদেরকে সাহায্য করতেই এসেছিল। বলপূর্বক ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়ে ঘুষের টু-পাইস কামানোর ধান্দায় নয়। আমরা চললাম। ৬. এরপর ওয়াচার নিয়োজিত করে চলে যাওয়া। তবেই না আমরা বুঝতাম - পুলিস আমাদের কত্ত বড় বন্ধু, করোনাও অত বন্ধু নয়। করোনায় ছুঁলে আঠারো ঘা, পুলিসে ছুঁলে সাড়ে ঊনিশ! সে আমরা গত সংসদ নির্বাচনেই হাড়ে হাড়ে বিলক্ষণ বুঝে গেছি।

mamun
২২ মার্চ ২০২০, রবিবার, ৭:১১

Are vai eta ki, Monir ki plane theke neme kono checking charai micro bus a kore govir rate bashay ashche. Airport a keno take check kora hoi nai. Tokhon keno totkhonat take institutional quarantine a pathano holo na. Aj 4 din por police keno gea hoirani korbe & atonko chorabe. Police vai ra ae probashi der pathano takate apnader salary hoy. Government fully failure hoyche bidesh ferot ae shob vaider institutional quarantine dite, ekhon tar dai dicche probashider upor.

অন্যান্য খবর