× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ১০ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার

ছুটিতে ফুটবলারদের কড়া বার্তা মোহামেডানের

খেলা

ম্পোর্টস রিপোর্টার | ২৫ মার্চ ২০২০, বুধবার, ৭:৪৫

করোনা ভাইরাসে থমকে আছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। স্থবিরতা নেমে এসেছে দেশি ক্রীড়াঙ্গনেও। এরইমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে ক্রিকেট বোর্ড, হকি ফেডারেশনসহ অনান্য ক্রীড়া কার্যালয়। বাড়িতে বসে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনও। লীগ বন্ধ। কবে শুরু হবে তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই। তাই অনুশীলন বন্ধ করে দেশি ফুটবলারদের ছুটি দিয়েছে বেশির ভাগ ক্লাব। তবে ছুটি দিলেও ফুটবলারদের কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করেছে ক্লাবগুলো।
সবচেয়ে কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। করোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করার পাশাপাশি বাড়িতে বসে ফিটনেস ধরে রাখতে বলা হয়েছে তাদের। সেটি না পারলে মুখোমুখি হতে হবে আর্থিক জরিমানার!
ক্লাবগুলোর আর্থিক ক্ষতির কথা বিবেচনা করেই করোনা ভাইরাসের মধ্যেও লীগ চালাতে চেয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। আন্তর্জাতিক সব খেলা বন্ধ হওয়ার পরেও ফাঁকা গ্যালারির সামনে খেলা চালাতে চেয়েছিল বাফুফে। পরবর্তীতে সরকারের তরফ থেকে সব খেলা বন্ধ করার নির্দেশ দিলে ফুটবল লীগও বন্ধ করে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি। লীগ বন্ধ হওয়ায় একমাত্র বসুন্ধরা কিংস ছাড়া অন্যক্লাবগুলো ছুটি দেয় দেশি ফুটবলারদের। মোহামেডানও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে মোহামেডান ছুটি দিলেও কড়া নির্দেশনা দিয়েছে। প্রিমিয়ার ফুটবল লীগে ভালো করছে ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং। ৬ ম্যাচে চার জয়ে তাদের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতেই এমন কড়াকড়ি। আগামী ৩১শে মার্চ পর্যন্ত ক্যাম্প বন্ধ থাকায় খেলোয়াড়েরা অনুশীলন করতে পারছেন না। যে যার বাড়িতে চলে গেছেন। কিন্তু দলের অস্ট্রেলিয়ান কোচ শন লেন খুব ফিটনেস সচেতন। খেলোয়াড়েরা যেন ব্যক্তিগতভাবে বাড়িতেই ফিটনেসের দিকে দৃষ্টি দেন-এমন বার্তাই দিয়েছেন তিনি। নতুন করে ক্যাম্প শুরু হলে সবার ফিটনেস পরীক্ষা নেয়া হবে। সেখানে কেউ ফিটনেস পরীক্ষায় ব্যর্থ হলে তাকে জরিমানার সম্মুখীন হতে হবে বলে সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। দলের অধিনায়ক মাযহারুল ইসলাম হিমেল এই কড়াকড়ি পদক্ষেপের কথা জানিয়ে বলেন, ‘ছুটিতে যাওয়ার আগে কোচ সবাইকে বার্তা দিয়েছেন যেন ফিটনেস ঠিক থাকে। এমনিতে কোচ ফিটনেসের ওপর বেশ জোর দিয়ে থাকেন। এখন যদি ফিটনেস ৯০ ভাগের নিচে থাকে, তাহলে আমাদের জরিমানা দিতে হবে। যে কারণে সবাইকে সচেতন থাকতে হচ্ছে।’ দলের আরেক ফুটবলার ইউসুফ সিফাত বলেন, কোচ আমাদের গাইড লাইন দিয়ে দিয়েছেন। করোনা ভাইরাস সতর্কতায় ঘরে থাকার পাশাপাশি কিভাবে ফিটনেট ধরে রাখা যায় তা নিয়ে কাজ করতে বলেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর