× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৭ জুন ২০২০, রবিবার

চিকিৎসা নিতে ওসমানী হাসপাতালে ফিনল্যান্ডের নাগরিক

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ২৭ মার্চ ২০২০, শুক্রবার, ৭:৪৭

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন ফিনল্যান্ডের একজন নাগরিক। জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে পরীক্ষা শেষে চিকিৎসাপত্র দিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন। কিন্তু এতে সন্তুষ্ট নন তিনি। প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে তিনি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে ঘোরাঘুরি করছিলেন। এ কারণে তাকে নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে কৌতূহল দেখা দেয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন- বিকেল ৪টার দিকে একটি সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন ফিনল্যান্ডের এক নাগরিক। তিনি জরুরি বিভাগে থাকা চিকিৎসকের কাছে গিয়ে তাকে ওষুধ দেয়ার কথা বলেন। এ সময় জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে দেখে চিকিৎসাপত্র লিখে দেন।
ফিনল্যান্ডের ওই নাগরিক তার নাম ‘মার্ক’ বলে ডাক্তারদের জানান। জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর স্বজনরা জানিয়েছেন- হাসপাতালের ডাক্তার তাকে চেকআপ করে চিকিৎসাপত্র দিলেও তিনি সন্তুষ্ট হননি। চিকিৎসাপত্র দেয়ার পরও তিনি বারবার ডাক্তারের কাছে ছুটে যান। ফিনল্যান্ডের নাগরিকের ওই আচরণ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে কৌতূহল দেখা দেয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টা পর্যন্ত ওই নাগরিক জরুরি বিভাগের সামনেই অবস্থান করছিলো।
সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় মানবজমিনকে জানিয়েছেন- ফিনল্যান্ডের ওই নাগরিক নয়াসড়কের ক্যাথলিক চার্চের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। তিনি দেড় মাস আগে ওই চার্চে এসেছেন। চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে গেলে তাকে দেখে চিকিৎসাপত্র দেয়া হয়। ফিনল্যান্ডের ওই নাগরিক ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ হতে পারেন বলে ধারণা করেন তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
রিপন
২৮ মার্চ ২০২০, শনিবার, ৯:৪৪

মানসিক ভারসাম্যহীন কী করে? হিমাংশূ বাবু কখন তার মনোরোগ টেসট করলেন?

অন্যান্য খবর