× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুন ২০২০, বুধবার
কলকাতা কথকতা

রাজ্য জুড়ে মদের দোকান খুলছে, বিপিন বাবুর চ্যালাদের মুখে হাসি

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ৩ মে ২০২০, রবিবার, ৩:১২

দেশ জুড়ে লকডাউন বাড়ানো হলো সতেরো মে পর্যন্ত, অথচ কেন্দ্রের ফরমান অনুযায়ী রেড, অরেঞ্জ এবং গ্রিন জোনে মদ এর অফ শপগুলো খুলছে সোমবার থেকে। কেন্দ্রের নির্দেশনামা অনুযায়ী রাজ্যের আড়াইহাজার মদের দোকানে বিপিনবাবুর কারণসুধা পাওয়া যাবে সোমবার থেকেই। তবে, পানশালাগুলো বন্ধই থাকছে। কেন্দ্রের এই আদেশে বিপিনবাবুর চ্যালাদের মুখে যতই হাসি ফুটুক মমতা বন্দোপাধ্যায় সরকার সোমবার নতুন গাইডলাইন জারি করবে। তারপর কি মদ রসিকদের মুখের হাসি ম্লান হতে পারে? তথ্যাভিজ্ঞ মহল বলছে, সম্ভাবনা কম। কারণ, মদ বিক্রি বন্ধ থাকায় আবগারি রাজস্য মিলছে না। অন্য রাজ্যের মত পশ্চিমবঙ্গেও কর আদায়ে ক্ষতি হচ্ছে। এই অবস্থায় তৃতীয় দফার লকডাউনে মদের অফ শপ গুলোকে ছাড় দেয়ার সম্ভাবনা প্রবল।
রাজ্য সরকারের মদ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বেভকো তাদের বাইশটি গুদামের মধ্যে উনিশটিরই দরজা খুলে দিচ্ছে সোমবার। পশ্চিমবঙ্গ প্রতিবছর এক কোটি চল্লিশ লক্ষ কেস কড়া পানীয় বিক্রি করে যাতে এলকোহলের পরিমাণ দশ শতাংশের বেশি থাকে। আট শতাংশ এলকোহোল নিয়ে বিয়ার বিক্রি হয় বছরে আশি লক্ষ কেস। এই বিক্রি থেকে মোটা আবগারি শুল্ক আদায় হয়। এপ্রিল এর গোড়ায় রাজ্যে সবধরণের মদের দাম তিরিশ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে আয় বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে। সোমবার থেকে অফশপ গুলোর জন্যে কেন্দ্র যে গাইডলাইন দিয়েছে তাতে বলা হয়েছে, ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে পাঁচ ফুট দূরত্ব রাখতে হবে। পাঁচজনের বেশি একসঙ্গে দোকানে ঢুকতে পারবেন না, মাস্ক এবং স্যানিটাইজার বাধ্যতামূলক। প্রশ্ন একটাই, বিপিনবাবুর শিষ্যেরা এত কড়াকড়ি মানবে তো?

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
shiblik
৩ মে ২০২০, রবিবার, ৭:০২

India should open the alcohol shops otherwise they will have a terrible hangover.

অন্যান্য খবর