× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুন ২০২০, বুধবার
কলকাতা কথকতা

দুদিনে একশো কোটি টাকার মদ বিক্রি রাজ্যে, করোনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ৬ মে ২০২০, বুধবার, ১১:৪৬

রেশনে দু মুঠো অন্ন জোগাতে লম্বা লাইন, মদের দোকানের সামনে তার থেকেও দীর্ঘ লাইন৷ সোম  আর মঙ্গলবার রাজ্যে মদ বিক্রির পরিমাণ একশো কোটি টাকার৷ আর মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্ত  তিন হাজার ছ শো পঁয়তাল্লিশ জন৷ পুরো দেশে  মৃতের সংখ্যা একশো পঁচানব্বই৷  মদের দোকান খোলার আগে রবিবার আক্রান্তের সংখ্যা ছিল দু হাজার চারশো সাতাশি জন৷ রাজ্যে  মৃতের সংখ্যা ৭৯৷ তবু হেলদোল নেই প্ৰাসকদের৷ সোমবার নিয়মকানুন বলবৎ হতে হতে বেলা তিনটে গড়িয়ে যায়৷  তাই,  এদিন রাজ্যে পঁয়তিরিশ কোটি টাকার মদ বিক্রি হয়৷ মঙ্গলবার পুরো সাত ঘন্টা ধরে বিক্রি হয় পঁয়ষট্টি কোটি টাকার৷  রাজ্যে দেশি ও বিদেশী মদ মিলে গড়ে  প্রতিদিন চল্লিশ থেকে পঁয়তাল্লিশ কোটি টাকার মদ বিক্রি হয়৷ লকডাউনে সেই রেকর্ড ভেঙে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে৷  তাও রাজ্যে আড়াইহাজার অফ শপ এর মধ্যে খুলেছে সতেরোশো থেকে আঠারোশো দোকান৷  কলকাতায় খুলেছে পঞ্চাশ থেকে পঞ্চান্নটি দোকান৷  কলকাতায় এক একটি অফ শপে মদ বিক্রি হয়েছে একদিনে আট ন লক্ষ টাকার যা সর্বকালীন রেকর্ড৷ দুদিনে সরকার প্রায় সত্তর কোটি টাকা শুল্ক ঘরে তুলেছে৷  দুহাজার উনিশ - কুড়িতে মদ থেকে রাজ্য সরকার আয় করে এগারো হাজার কোটি টাকা৷ দুহাজার কুড়ি - একুশে আয় ধরা হয়েছে বারোহাজার সাতশ একতিরিশ কোটি টাকা৷  এই লকডাউন সেই আয় বাড়িয়ে দেবে বলেই  বিশেষজ্ঞদের ধারণা৷ রাজ্যের  নিজস্ব  মদ বিপণন সংস্থা বেভকো মদের হোম ডেলিভারির জন্যে ই  সরবরাহের ব্যাবস্থাও করেছে৷  দেখে শুনে মনে হচ্ছে,  কারও সর্বনাশ,  কারও পৌষ মাস প্রবাদটা বোধহয় এখানে খেটে  যায়৷

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
৫ মে ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:৫০

In western countries I don't think so many people are addicted.

অন্যান্য খবর