× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩ জুন ২০২০, বুধবার
কলকাতা কথকতা

মন ভালো নেই কলকাতার মোরগ পোলাও শিল্পীর, সিরাজগঞ্জের জন্যে মন কাঁদে রিয়াজের

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ১৮ মে ২০২০, সোমবার, ৯:৫৯

কলকাতার সেরা মোরগ পোলাও শিল্পী তিনি। বাংলাদেশের অন্যতম সেরা আইটেমটির স্বাদ নেয়ার জন্যে ভিড় ভেঙে পরে কলকাতার মির্জা গালিব স্ট্রিটের রেস্তোরাঁটিতে। কলকাতায় মোরগ পোলাও অনেকে রাঁধেন। কিন্তু রিয়াজ আহমেদের মোরগ পোলাওয়ের স্বাদটাই আলাদা। ঢাকা, খুলনা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী থেকে আসা বাংলাদেশিরাও মুগ্ধ রিয়াজের হাতের মোরগ পোলাও খেয়ে। রবিবার এর পড়ন্ত সন্ধ্যায় শুনশান মির্জা গালিব স্ট্রিট এর রেস্তোরাঁয় বসে রিয়াজ শোনালেন তাঁর হাতের জাদুর কথা, আমি আমার পোলাও এ কখনো হেন ব্যবহার করিনা, মাংসটা কক এর হতে হবে। তবে না জমবে মোরগ পোলাও। মির্জা গালিব স্ট্রিট করোনা পূর্ববর্তী সময়ে যেন ছিল একটুকরো বাংলাদেশ।
রাস্তায় ঘাটে গিজগিজ করতেন বাংলাদেশি পর্যটকরা। তাঁদের সবার ডেস্টিনেশন ছিল মির্জা গালিব স্ট্রিটের রেস্তোরাঁটি এবং রিয়াজ আহমেদের হাতে তৈরি মোরগ পোলাও আর দই দিয়ে বানানো মশলাদার পানীয় বোরহানি। আফসোস করছিলেন রিয়াজ। করোনার এই লকডাউনে বাংলাদেশিদের আসা বন্ধ। রবিবারের সন্ধ্যায় কাউন্টারে হোম ডেলিভারির অর্ডার সামলাতে সামলাতে বললেন, মজা নেই। সামনে বসিয়ে খাওয়ানোর পর মোরগ পোলাও এর ঘি মাখানো বাসমতি ক্যালের সুগন্ধে কাস্টমার এর সেই উজ্জ্বল মুখগুলি কোথায়? সাতান্ন বছরের রিয়াজ এর সঙ্গে কথা বলতে বলতেই চতুর্থ দফার লকডাউন একত্রিশ মে পর্যন্ত ঘোষিত হলো। ছলছল করে উঠলো রিয়াজ এর চোখ, কতদিন যমুনার পাড়ে সিরাজগঞ্জের বাসায় যাইনি। মেয়ের ঘরে নাতনি হয়েছে। তাকে চোখের দেখাও দেখিনি। অথচ দেখুন কলকাতা থেকে ঢাকা দুশো বেয়াল্লিশ কিলোমিটার আর সিরাজগঞ্জ ঢাকা থেকে একশোদশ - কত কাছে কিন্তু কত দূরে। ঈদের আগে নতুন জামাকাপড় নিয়ে ঢাকা থেকে স্টিমারে ছ' ঘন্টার জলপথ ব্যবহার করে সিরাজগঞ্জ ঘুরে আসেন রিয়াজ আহমেদ।
এবার সব বন্ধ। কলকাতায় রিয়াজের হাতের মোরগ পোলাও ছাড়াও কাচ্চি বিরিয়ানী, ভুনা খিচুড়ি, পাতলা খিচুড়ির খুব সুনাম। কিন্তু মোরগ পোলাও রাঁধতেই বেশি ভালোবাসেন রিয়াজ। সেই কবে, সিরাজগঞ্জে নানির কাছে শিখেছিলেন মোরগ পোলাও রাঁধা নানি চলে গেছেন। কিন্তু তাঁর রান্নার স্বাদ আর খুশবু আজও অম্লান। নানিই শিখিয়েছিলেন, হেন নয়, কক. রিয়াজ অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলেন নানির সেই উপদেশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর