× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার

সাকিব-রাজ্জাকদের সেই বাঁহাতি স্পিন মনে রেখেছেন পিটারসেন

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২১ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:১৬

বাংলাদেশকে ‘বাঁহাতি স্পিনের দেশ’ মনে করেন সাবেক ইংলিশ ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন। সম্প্রতি একটি ইংলিশ নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত ভিডিওতে উপমহাদেশে খেলার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন পিটারসেন। সেখানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ প্রসঙ্গও। পিটারসেন জানিয়েছেন, ২০১০ সালে বাংলাদেশ সফরে টাইগারদের বাঁহাতি স্পিন খেলাটা ছিল তার জন্য কঠিন এক চ্যালেঞ্জ। ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান বাংলাদেশ সফরকে ‘টাফ ট্যুর’ আখ্যা দিয়েছেন।
২০০৫-১০ পর্যন্ত টাইগারদের বিপক্ষে ৭ ওয়ানডে, ৪ টেস্ট খেলেছেন পিটারসেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের মাটিতে ২ টেস্ট ও ৩ ওয়ানডে। প্রত্যেকবারই কাবু হয়েছে বাঁহাতি স্পিনে। টেস্টে ৪ ইনিংসে তার সংগ্রহ ৩৩৭ রান।
২০১০-এ চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম টেস্ট ব্যক্তিগত ৯৯ রানে আব্দুর রাজ্জাকের বলে বোল্ড হন পিটারসেন। দ্বিতীয় ইনিংসে তাকে এলবির ফাঁদে ফেলেন সাকিব। ম্যাচটা অবশ্য ইংল্যান্ড জিতেছিল ইনিংস ব্যবধানে। ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসেও তার উইকেট যায় সাকিবের পকেটে। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ৭৪* রানের ইনিংসে দলকে ৯ উইকেটের জয় এনে দেন পিটারসেন।
টেস্টের পর ওয়ানডে সিরিজ ইংলিশরা জেতে ৩-০তে। তবে পিটারসেনের জন্য সেটা ছিল দুঃস্বপ্নের সিরিজ। ৩ ইনিংসে করতে পেরেছিলেন মোটে ৬৮ রান। সর্বোচ্চ ২২। তিনবারই আউট হন বাঁহাতি স্পিনে। প্রথম ওয়ানডেতে সাকিব পরের দুটিতে পিটারসেন পরিণত হন আব্দুর রাজ্জাকের শিকারে।
পিটারসেন বলেন, ‘বাংলাদেশ ট্যুর নিয়ে যদি বলি, সফরের জন্য ওটা একটা কঠিন জায়গা। বিশেষ করে, ওদের বাঁহাতি স্পিন খেলতে পারিনি। বাংলাদেশে প্রতিটি বোলারই যেন বাঁহাতি স্পিনার। বাংলাদেশ নিয়ে ভাবলে কেবল বাঁহাতি স্পিন মনে পড়ে।’
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর