× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৩১ মে ২০২০, রবিবার

ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধগুলো দ্রুত মেরামত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে: এনামুল হক শামীম

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:২১
ফাইল ছবি

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, ঘুর্নিঝড় আম্ফানের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাধগুলো দ্রুত মেরামত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারি, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। গতকাল বুধবার রাতেও বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরে সঙ্গে নিয়ে কাজ করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাধগুলো দ্রুত মেরামত করা হবে। গতকাল দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।
 
পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, করোনা ভাইরাস দুর্যোগ কাটিয়ে ওঠার জন্য আমরা যখন ব্যাপকভাবে কাজ করে যাচ্ছি, তখন আরেকটা দুর্যোগ ( আম্ফান) চলে এসেছে। এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ, এতে কারও হাত নেই। এটা আমরা ঠেকাতে পারব না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মানুষের জানমাল রক্ষার জন্য যতটুকু বিশেষ ব্যবস্থা আমরা নিতে পারি, সেটা আমরা নিয়ে যাচ্ছি।
আর অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে এবারের ঘূর্ণিঝড়টা অনেক শক্তিশালী। যার কারণে আম্ফান (পানি বোর্ডের বাধের) সক্ষমতার চেয়ে বেশি। যে কারণে অনেক এলাকায় বাধ ভেঙ্গে গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বেড়িবাধগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
 
এনামুল হক শামীম বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে ১৬ হাজার ৬০০ কিলোমিটার বাঁধ রয়েছে। এর মধ্যে উপকূল এলাকায় রয়েছে ৫ হাজার ৭৯৭ কিলোমিটার। ডুবন্ত বাধ রয়েছে আড়াই হাজার কিলোমিটার। এসব বাধগুলো অনেকটাই পুরানো। সেসব বাধগুলো প্রশস্ত ও উচু করার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। দ্রুতই কাজ শুরু হবে। তিনি বলেন, আমরা উপকূলীয় এলাকা বিশেষ করে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, ভোলা এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাধগুলোর তালিকা তৈরি করেছি। এগুলো দ্রুত মেরামত করার জন্য কাজ শুরু করতে নির্শেনা দিয়েছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর