× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার

৬’শ পরিবারের জন্য তামিম-অপু-মুশফিকের ঈদ বাজার

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২১ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:৪০

 
নতুন জামা-কাপড় ছাড়াও সকালে সেমাই, দুপুরে পোলাও-মাংস- ঈদের দিনে এমনটাই বাংলার ঘরে ঘরে চিত্র। ধনী-গরীব সবাই এভাবেই পরিবারের সঙ্গেে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়। তবে এবার চিত্রটা ভিন্ন হতে যাচ্ছে। করোনা ভাইরাসের থাবায় দরিদ্র মানুষেরা দিশেহারা। কাজ নেই, আয় নেই। নতুন জামা তো দূরে থাক, ঘরে খাবার জোটানোই মুশকিল তাদের জন্য। এমন পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জের ৬’শর বেশি দরিদ্র পরিবারের জন্য ‘ঈদ বাজার’ করে দিচ্ছেন তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম ও স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু।

যেখাানে থাকবে একটি মুরগী, পোলাও চাল, তেল, সেমাই, দুধ, চিনি এবং ঘি থেকে শুরু করে ঈদের দিনে খাওয়ার সব উপকরণ।
যা দিয়ে ছোট একটি পরিবারের মুখে ফুটবে হাসি। ঘরে না খেয়ে আনন্দের দিনটি পার করতে হবে না মোটেও।

নারায়ণগঞ্জের ক্রিকেটার নাজমুল অপু এই মহতী উদ্যোগ নেন। দুস্থদের সহযোগিতায় এতদিন তার সঙ্গী ছিলেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম। এবার তাদের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন সাবেক অধিনায়ক ও দেশের সেরা উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশফিক।

এই বিষয়ে অপু বলেন, ‘আমি ও তামিম ভাই শুরুতে চেষ্টা করেছি যে রোজার সময়ে কারো সেহেরি করতে কোন ধরনের সমস্যা না হয়। এজন্য ৮’শ পরিবারকে খাদ্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় কিছু পণ্য দিয়েছিলাম। একদিন ১৮’শ পরিবারকে দিয়েছি উন্নত মানের ইফতারি। এবার ভাবলাম নারায়ণগঞ্জে আমার এলাকা ফরাজি কান্দায় অনেক লোক আছেন, যারা ঈদের দিন ভালো খাবার খেতে পারবেন না পরিবার নিয়ে। সেই ভাবনা থেকেই কাজ শুরু করেছিলাম ঈদ বাজার করে দেয়ার। তামিম ভাইতো ছিলই। এখন আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন মুশফিক ভাই। তিনি বড় অংকের অর্থ সহায়তা দিয়েছেন, যেন দরিদ্র মানুষগুলোর মুখে কিছুটা হলেও হাসি ফোটাতে পারি। তাদের দু’জনকে আমার পক্ষ থেকে ধন্যবাদ।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর