× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার

অসহায় ক্রীড়াবিদের তালিকা জমা দিতে ব্যর্থ ৯ ফেডারেশন

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২২ মে ২০২০, শুক্রবার, ১২:১১

আর্থিক সংকটে খেলোয়াড়দের জন্য কিছুই করতে পারছে না ফেডারেশনগুলো। এসব ফেডারেশন আবার নিজেদের ব্যর্থতায় সরকারের আর্থিক সহযোগিতাও খেলোয়াড়দের নিয়ে দিতে পারলো না। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ৫৩ ফেডারেশন/এসোসিয়েশনের মধ্যে থেকে ৩৩টি বাছাই করে যখন অসহায় ক্রীড়াবিদদের তালিকা দিতে বললো, তখন শতভাগ সাড়া পাওয়া গেলো না। ২৪ ফেডারেশন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের নির্দেশ মতো তালিকা জমা দিয়েছিল। তালিকা জমা না দেয়ায় ৯ ফেডারেশনের অসহায় ক্রীড়াবিদরা কোনো আর্থিক সহযোগিতা পায়নি।
‘করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ক্রীড়াবিদদের জন্য সরকার কিছুই করছে না। আমাদের অনেক ক্রীড়াবিদ আছেন যাদের অবস্থা ভালো নয়। তারা ঠিকমতো খেতেও পারছেন না’- অনেক ক্রীড়া ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের এটা যেন মুখস্ত বুলি। অভাবের কথা বেশি শোনা গেছে ব্যাডমন্টিন, ফেন্সিং, জুডো,  কুস্তি ও কারাতে ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের মুখে।
অথচ সরকারের দেয়া আর্থিক সহযোগিতায় নেই এসব ফেডারেশনের খেলোয়াড়রা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে আভ্যন্তরিণ কোন্দলে খেলোয়াড়দের তালিকা করতে পারেনি এসব ফেডারেশন। আর কর্মকর্তাদের অবহেলার কারণে প্রথম দফায় বঞ্চিত হয়েছে দাবা, বস্কেটবল, সাইক্লিং, শুটিং ফেডারেশনের অসহায় ক্রীড়াবিদরা।
বুধবার যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল তার মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সহযোগিতায় ৫ শতাধিক অসহায় ক্রীড়াবিদকে ১০ হাজার টাকা করে দিয়েছেন। এসময় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের চেয়ারম্যান এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, ‘আমরা প্রথমে ২৭ ফেডারেশনের কথা বলেছিলাম। পরে সেটা বাড়িয়ে ৩৩ করেছি। আমাদেরকে ২৪ ফেডারেশন/এসোসিয়েশন অসহায় ক্রীড়াবিদদের তালিকা জমা দিয়েছে। ৯ ফেডারেশন থেকে তালিকা পাইনি বলে তাদের টাকা দিতে পারিনি। তবে আমাদের হাতে আরো টাকা আছে। বাকি ৯ ফেডারেশন তালিকা জমা দিলে তাদের অর্থও বুঝিয়ে দেয়া হবে।’
ক্রিকেট বোর্ডের সহযোগিতায় ৫০১জন ক্রীড়াবিদের হাতে চেক তুলে দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে সর্বাধিক ১০০জন ছিলেন ফুটবলার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর