× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৭ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার
কলকাতা কথকতা 

ঈদে যেন শুভেচ্ছার বার্তা, ভারতে টিভি ও ডিজিটাল মিডিয়া রমরমা হবে করোনার পরে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা | ২৫ মে ২০২০, সোমবার, ৯:৪৫

ঈদের সকালে যেন আশীর্বাদের মতো ঝরে পড়লো বার্তাটি ৷ মুম্বাইয়ের একটি মিডিয়া গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে, করোনাজনিত লকডাউনের পরে ভারতে মিডিয়ার যে দুটি ব্যবসা সব থেকে আগে ঘুরে দাঁড়াবে তা হলো টিভি এবং ডিজিটাল মিডিয়া ৷ সর্বভারতীয় এই গবেষণা সংস্থাটি জানাচ্ছে, আগামীদিনে ভারতে সিনেমা, রেডিও, মুদ্রিত সংবাদপত্র করোনার জের কাটাতে ঢের সময় নেবে ৷ কিন্তু টিভি এবং ডিজিটাল মিডিয়া অতি দ্রুত ছন্দে ফিরবে ৷ বিজ্ঞাপনদাতারা তাদের পণ্যের বিকাশের জন্যে এই দুটি মিডিয়াকেই বেছে নেবে ৷ এপ্রিলের বিজ্ঞাপনের হিসেব টিও তারা দিয়েছে ৷ লকডাউনের এই মর্মান্তিক সময়ে ডিজিটাল মিডিয়া ২৬.১৩ শতাংশ, টিভি ৪৬. ১৫ শতাংশ, রেডিও ৭১.৪৩ শতাংশ এবং প্রিন্ট মিডিয়া ৮৪.০০ শতাংশ বিজ্ঞাপন হারিয়েছে ৷ শুধু এই হারানো বিজ্ঞাপনই নয়, যেহেতু পোস্ট লকডাউন সময়ে সামাজিক দূরত্ব বাড়বে ৷ বাইরের বিনোদন জগৎ সীমাবদ্ধ হবে তাই ভারতে কেন উপমহাদেশেই টিভি ও ডিজিটাল মিডিয়ার ভিউয়ারশিপ বাড়বে ৷ ফলে, বিজ্ঞাপনদাতারা আকৃষ্ট হবে ৷ গবেষণা সংস্থাটি জানাচ্ছে, ভারতে লাইভ এন্টারটেনমেন্ট, পর্যটন, রেস্তোরাঁ - হোটেল শিল্পের বিজ্ঞাপন এর দরজা খুলতে দুমাস এর বেশি সময় লাগবে, কিন্তু ফার্মাসিউটিক্যালস, এফ এম সি জি, রিটেল এর বিজ্ঞাপনের দরজা খুলে যাবে লকডাউন এর পরে দু, তিন সপ্তাহে ৷ এর ফায়দা পাবে টিভি ও ডিজিট্যাল মিডিয়া ৷ মুম্বাই এর সংস্থাটি জানাচ্ছে যে বড় নেটওয়ার্কগুলি ছাড়াও স্থানীয় টিভি ও ডিজিটাল মিডিয়াও এই সুবিধা পাবে ৷

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর